রবিবার, ২১ জানুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৫:০৩:৪৯

বাবা-ছেলেকে জেলে পাঠিয়ে বাড়ি-ঘর ভাঙচুর করে গরু লুট

বাবা-ছেলেকে জেলে পাঠিয়ে বাড়ি-ঘর ভাঙচুর করে গরু লুট

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে বাবা-ছেলেকে জেলে পাঠিয়ে লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলায় একটি নিরীহ পরিবারের বাড়িঘর ভাঙচুর করে ৪টি গরু লুটপাট করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রভাশালী কোরবান আলীর বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় শনিবার রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ গ্রহন করেনি বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। এরপর থেকে ওই পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতায় দিন যাপন করছেন। এরআগে শনিবার বিকেলে উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের টেপাটারী এই ঘটনাটি ঘটে।

জানাগেছে, দীর্ঘ দিন ধরে উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের টেপাটারী গ্রামের মৃত আব্দুল ওহাব এর ছেলে সুলতান (৬০) এর সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে একই এলাকার কোরবান আলীর নামের এক প্রভাবশালী ব্যক্তির সাথে। প্রত্যক্ষদর্শী আঃ রহমান ও মিনহাজুল বলেন, ৫০/৬০ জনের একটি গ্রুপ দা, লাঠি,রামদা নিয়ে সুলতানের বাড়িতে ঢুকে বাড়িঘর ভাংচুর করে লুটপাট করেন।

সুলতানের স্ত্রী আছিয়া খাতুন জানান, কোরবানের মিথ্যা অভিযোগে টাকার বিনিময়ে পুলিশ অতি উৎসাহী হয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে আমার স্বামী সুলতান ও ছেলে আব্দুল কাদেরকে আটক করে জেল হাজাতে পাঠিয়েছে। আমার স্বামী সন্তান জেল হাজতে থাকার সুযোগ কাজে লাগিয়ে কোরবান আলী তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ফিল্মি স্টাইলে শনিবার বিকালে আমার বাড়িঘরে হামলা করে ৪টি গরু লুট করে নিয়ে যায়। তাদের হাত থেকে তার বৃদ্ধ মাও রক্ষা পায়নি।

আছিয়ার মেয়ে আছমা বেগম জানান, বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট করার পর রাতেই থানায় অভিযোগ দিতে গেলে পুলিশ প্রথমে অভিযোগটি আমলে নেয়নি। পরে অভিযোগটি নিলেও পুলিশ রবিবার পর্যন্ত কোন খোঁজ খবর নেয়নি। তিনি দাবী করেন, কোরবান আলীর লোকজন প্রাণনাশেরও হুমকি দিচ্ছেন। এ বিষয়ে কোরবান আলীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, তালাবদ্ধ করে বাড়ির লোকজন সটকে পড়েছেন।

এ বিষয়ে আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেশ্বর রায় পুলিশের বিরুদ্ধে আনীন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার স্থানীয়ভাবে আপোষ-মীমাংসার চেষ্টা করা হয়েছে।

 

আজকের প্রশ্ন

শিক্ষা অধিদফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। জাতির জন্য এমন পরামর্শ ভয়ানক নয় কি?