মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১০:৪৫:৪০

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াভহ আগুন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াভহ আগুন

কক্সবাজার : কক্সবাজারের টেকনাফের হোয়াইক্যং চাকমারকুলস্থ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াভহ আগুনে পুড়ে গেছে ২৮টি ঘর। মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রনজিত বড়ুয়া জানায়, এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। আগুনের সূত্রপাত কেমন করে হয়েছে। সে সম্পর্কেও কিছুই বলা যাচ্ছে না।

তিনি জানান, রাত দেড়টার দিকে টেকনাফের লেদা অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে কয়েক কিলোমিটার ভেতরে পাহাড়ে গড়ে উঠা চাকমারকুলস্থ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন লাগে। এতে ১৪টি ঘর আগুনে পুড়ে গেছে। এখানে প্রতিটি ঘরে দুটি করে কক্ষ ও এক কক্ষে একটি করে পরিবার বাস করতেন।

ওসি আরো জানান, খবর পেয়েই পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেছেন আগুনে ঘর পুড়লেও কেউ হতাহত হননি।

বাঁশ, চট এবং পলিথিনে গড়া ঘরগুলো একটার সঙ্গে আরেকটা লাগোয়াভাবে তৈরি করায় মুহূর্তে সব ঘরে আগুন ছড়িয়ে গেছে। ২০-৩০ মিনিটের মধ্যে সব ভস্মীভূত হয়ে যায় বলে স্থানীয় রোহিঙ্গারা জানান।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ আগস্ট টেকনাফের লেদা অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা বস্তিতে স্থানীয় দুর্বৃত্তরা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ভোলান্টিয়ার মো. আবু ইয়াছেরকে (২২) গুলি করে হত্যা করে।

এ ঘটনার তিন দিনের মাথায় পুড়ে যাওয়া লেদা অনিবন্ধিত ক্যাম্পের অনতিদূরে চাকমারকূল পাহাড়ি এলাকার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিকটবর্তী এলাকা থেকে গলা কাটা জখম অবস্থায় রোহিঙ্গা তিন যুবককে ৩ সেপ্টেম্বর উদ্ধার করে টেকনাফ থানা পুলিশ।

এ সব ঘটনার রেশ না কাটতেই সেই পাহাড়ি রোহিঙ্গা বস্তিতে আগুন লাগার ঘটনায় স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ধারাবাহিক ঘটনাগুলোর সঙ্গে কোনো যোগসূত্র আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি জাতিসংঘে যাওয়ায় সরকার আতঙ্কিত - ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?