শুক্রবার, ২২ জুন ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১৩ জুন, ২০১৮, ০৯:৪০:৪৭

যে ৮টি ভুল করলে মাসুল গুনতে হবে আজীবন!

যে ৮টি ভুল করলে মাসুল গুনতে হবে আজীবন!

লাইফস্টাইল ডেস্ক : কথায় আছে, মানুষ মাত্রই ভুল। জীবনে চলার বাঁকে আমরা সবাই কম বেশি ভুল করে থাকি।কিছু ভুল আমাদের মনে জন্ম দেয় অনুশোচনার, নিজেকে আরো উন্নত করতে সহায়তা করে। আর কিছু ভুল সুন্দর জীবনটকে নিমিসেই এলোমেলো করে দেয়। মনের অজান্তে ভুল হলে তা সম্পর্কে আমাদের কিছুই করার থাকে না। কিন্তু জেনে বুঝে ভুল করলে পরে সেটার জন্য চরম মাসুল দিতে হবে। চলুন জেনে নেয়া যাক ভুলগুলো কী কী:

মা-বাবার দেখানো পথে চলা: সব চেয়ে কষ্টের সময় হয় বাচ্চাদের জন্য যখন মা-বাবা তাদের লক্ষ্য স্থির করে দিয়ে থাকেন। হয়তো দেখা গেলো বাচ্চাটি হতে চায় লেখক কিংবা আঁকিয়ে, কিন্তু বাবা মা তাকে বানাতে চান ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার। এই ভুলটির চাইতে বড় কোনো ভুল হতে পারে না মানুষের জীবনে। প্রতিটি মানুষ আলাদা গুণ নিয়ে জন্ম নেয়, তার নিজস্ব ইচ্ছা রয়েছে। তার মনের বিরুদ্ধে গিয়ে সে হয়তো বাবা মায়ের নির্ধারিত পথে চলবে কিন্তু উন্নতি করতে পারবে না। কারণ তার মন অন্যদিকে কাজ করে। ফলে পরবর্তীতে গিয়ে পস্তান অনেকেই। তাই বিনা বাক্যব্যয়ে মেনে নেয়ার চাইতে একটু বোঝান নিজের অভিভাবককে।

অভিভাবকের কথা না শোনা: নিজের ইচ্ছাটা মা-বাবার কাছে তুলে ধরার মানে এই নয় যে আপনি সব কথায় নিজের ইচ্ছাটাকেই প্রাধান্য দেবেন। মনে রাখবেন মা-বাবা কখনোই সন্তানের অমঙ্গল চিন্তা করতে পারেন না। তারা যা বলেন তা তাদের অভিজ্ঞতা থেকেই বলেন। হয়তো এর মর্ম আপনি এখন বুঝতে পারছেন না। কিন্তু পরবর্তীতে গিয়ে বুঝে পস্তানো ছাড়া কিছুই করতে পারবেন না। আপনি আপনার নিজের লক্ষ্যস্থির করে ভেবে বসবেন না যে আপনি একা একাই পথ চলতে পারবেন। তারা যখন নিজেদের অভিজ্ঞতা থেকে কিছু বলবেন তখন তাদের কথার গুরুত্ব দিন।

অন্য জনকে অনুকরণ: অনেক সময় নিজের অবস্থান নিজের কাছে পছন্দ হয় না অনেকেরই। তখন নিজের সাথে দ্বন্দ্বের সমাধান করেন অনেকে অন্যের অনুকরণ শুরু করে। নিজের সত্ত্বা ভুলে গিয়ে একেবারে অন্যরকম একজন মানুষের মতো আচার আচরণ শুরু করেন অনেকে। ভেবে থাকেন এতে করে হয়তো সকলের প্রিয় পাত্র হতে পারবেন। কিন্তু এটি অনেক বড় ভুল। আপনি অন্য একজনের মতো অনুকরণ করলে কখনোই কারো মন জয় করতে পারবেন না। বরং নিজের সত্ত্বাই হারিয়ে ফেলবেন। সুতরাং এই ভুলটি করবেন না।

জীবনটাকে উপভোগ করতে না পারা: অনেকেই আছেন মানুষের কথায় কান দিয়ে কিংবা নিজের রুটিনের কারণে নিজের জীবনের অনেক বড় একটি অংশ উপভোগ করতে পারেন না। করতে পারেন না অ্যাডভেঞ্চারাস কিছু। পরে বয়স হয়ে গেলে আফসোস করে থাকেন। তাই এই ব্যাপারে পস্তাতে না চাইলে সময় থাকতে খানিকটা হলেও উপভোগ করে নিন নিজের জীবনকে।

অযথা মিথ্যে কথা বলা: আমাদের মধ্যে এমন অনেকে আছি যারা নিজেকে বড় বলে জাহির করার জন্য নানা ব্যাপারে ছোট ছোট অনেক মিথ্যে বলে থাকি। মিধ্যে বলে নিজেকে অন্যের সামনে বড় কিছু বলে উপস্থাপন করা হয়। কিন্তু এটি অনেক বড় একটি ভুল। আপনি নিজেকে উপস্থাপনের জন্য বলা এই ছোট মিথ্যে গুলোই ভবিষ্যতে আপনার জন্য ডেকে আনতে পারে নতুন বিপদ। তাই মিথ্যে তা যে যতোই ছোট হোক বলতে যাবেন না।

ছোট ছোট কারণে কারো মন ভাঙ্গা: আমরা অনেকেই আছি যারা জেনে-বুঝে ছোট ছোট কারণে পরিবার, বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজনসহ অনেকের সঙ্গে ছোট ছোট কারণে তাদের মনে আঘাত করে থাকি। এই আঘাতগুলোই আপনার জীবনের পথে কোন সময় হয়তো বড় কিছু হয়ে দাঁড়াতে পারে।

সেক্রিফাইজ না করা: কথায় আছে, সেক্রিফাইজের কোন মার নাই। আপনি আপনার পাশের কাউকে যদি সেক্রিফািইজ করেন তাহলে এর প্রতিদানটা কোন একদিন আপনি পাবেন। যদি সব সময নিজের স্বার্থ নিয়েই থাকেন তবে আপনার চরম বিপদে আপনার পাশে কেউ আসতে আগ্রহী হবে না।

সত্যিকারের ভালোবাসা বিসর্জন দেয়া: অনেক সময় ভুল ক্রমে, দুর্ঘটনা বশত, পরিবারের কথায় কিংবা জিদ করে অনেকে নিজের ভালবাসার মানুষটিকে বিসর্জন দিয়ে থাকেন। জীবন কাটান এমন একজনের সঙ্গে যার সাথে কখনোই সেই মনের সম্পর্ক স্থাপন করতে পারেন না। এই ভুলটি কোনো ক্রমেই করতে যাবেন না। যদি আপনি মনে করেন আপনার পছন্দের মানুষটি আপনার সত্যিকারের ভালোবাসে তবে সর্বশক্তি দিয়ে তাকে ধরে রাখুন, জীবনে পস্তাতে হবে না। আপনার পরিবার কিন্তু আপনার সঙ্গে চিরদিন থাকবে না। সুতরাং আপনার ভালো থাকা না থাকার বিষয় আপনাকেই চিন্তা করতে হবে।

আজকের প্রশ্ন

খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটকে ‘প্রহসন’ বলেছেন বিএনপি ও বামপন্থিরা। আপনি কি একমত?