সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ০৯:৪৪:৪১

শাকিব বিদেশে, অপু কি যাবেন সালিশে?

শাকিব বিদেশে, অপু কি যাবেন সালিশে?

বিনোদন ডেস্ক : গত বছরের প্রায় পুরোটা জুড়ে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস জুটি ছিল ঢালিউডের আলোচনার শীর্ষবিন্দুতে।এ বছরও তার ব্যতিক্রম নই। কারন গত ২২ নভেম্বর  ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) এ ডিভোর্সের আবেদন করেন শাকিব। নিয়মানুযায়ী সিটি করপোরেশন বিষয়টি সুরাহার উদ্যোগ নিয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৫ জানুয়ারি ডিএনসিসির অঞ্চল-৩ এর অফিসে তাদের তালাকের বিষয়টি নিয়ে শুনানি হওয়ার তারিখ নির্ধারণ হয়। তবে অপু  সেদিন গেলেও  হাজির ছিলেন না শাকিব । এরপর ডিএনসিসি সালিশের জন্য ১২ ফেব্রুয়ারি নতুন দিন নির্ধারণ করে।  কিন্তু এবারও বৈঠকে হাজির থাকার সম্ভাবনা নেই শাকিব খানের। কারণ বর্তমানে তিনি অস্ট্রেলিয়ায় 'সুপার হিরো' ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। তাই এদিনও(১২ফেব্রুয়ারী) যে তাদের ডিভোর্সের বিষয়টা সুরাহা হচ্ছে না সেটা একপ্রকার অনুমান করাই যাচ্ছে।

সাধারণত কোনো বিষয়ে সমঝোতায় আসতে হলে  বৈঠকে দু'পক্ষকেরই উপস্থিতির প্রয়োজন হয়। কিন্তু শাকিব খান 'থাকবেন না' বলেই এবারও সেই সুযোগ থাকছে না একপ্রকার নিশ্চিত। ফলে সমঝোতার কোনো আশা না থাকায় আগামীকালের বৈঠকে অপু বিশ্বাস নাও যেতে পারেন বলে মনে করছেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা।

ডিএনসিসির পারিবারিক আদালত সূত্র বলছে, তালাক নামায় যে সব কারণ উল্লেখ করেছেন সালিশকারীরা সে সব বিষয় মীমাংসা করা চেষ্টা করবেন। তারা দুজন একমত হতে পারলে আবার তারা দাম্পত্য জীবনে ফিরতে পারবেন।এক্ষেত্রে শাকিব রাজি না হলে দ্বিতীয় মাসেও চেষ্টা করবে সালিশকারীরা। এতে কাজ না হলে তৃতীয়বারের মতো সালিশি বৈঠক বসাবে ডিএনসিসি। তবে ওই সময়ের মধ্যে তারা যদি একমত হতে না পারে তাহলে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যাবে।আর সেই সময়টা শেষ হচ্ছে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘সরকার খালেদা জিয়ার রায় নির্ধারণ করে রেখেছে।’ তার এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?