শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১২ জুলাই, ২০১৮, ০৬:২৪:১৯

পরকীয়া প্রেমিকের স্ত্রী-সন্তানের হামলার শিকার নায়িকা রাকা

পরকীয়া প্রেমিকের স্ত্রী-সন্তানের হামলার শিকার নায়িকা রাকা

বিনোদন ডেস্ক : রাকা বিশ্বাস সিনেমায় নাম লিখিয়েছেন বেশি দিন হয়নি। কিছু দিন আগেই তার ‘প্রেমের কেন ফাঁসি’ নামক একটি ছবি মুক্তি পায়। আরো কয়েকটি ছবিতে কাজ করছেন বলেও শোনা যায়। তবে আলোচনায় আসতে পারেননি এখনো।

এদিকে সম্প্রতি রাকা বিশ্বাস পরকীয়া প্রেমিকের স্ত্রী-সন্তানের হামলার শিকার হয়েছেন। ফেসবুকে একটি পোস্ট করে রাকা নিজেই বিষয়টি জানিয়েছেন।

রাকার ফেসবুক পোস্ট থেকে জানা যায়, তিনি শাহীন নামের এক ব্যক্তিকে ভালোবাসতেন। যিনি বিবাহিত। তার ঘরে সন্তানও রয়েছে। কিছু দিন ধরে প্রেমিককে ফোন করে পাচ্ছিলেন না দেখে সোজা তার বাসায় চলে যান। আর তখনই পরকীয়া প্রেমিকের স্ত্রী-সন্তানের হামলার শিকার হন রাকা। তারা তাকে মারধর করেছে বলে অভিযোগ রাকার।

ফেসবুকে নির্যাতনের চিহ্ন সম্বলিত কয়েকটি ছবি পোস্ট করে রাকা লিখেছেন, এভাবেই শাহীনের পরিবারের সদস্যরা আমাকে মেরেছে। শাহীনকে কয়েকদিন মোবাইলে পাইনি, খুঁজতে গিয়েছিলাম তাই ওরা মেরে আমার এই হাল করেছে। শাহীনের বড় মেয়ে আমাকে বটি দিয়ে মারতে এসেছিল।

রাকা আরো লিখেছেন, আমার আব্বু নেই, তাই আমি পুলিশের কাছে না গিয়ে ফেসবুকেই আপনাদের জানিয়ে দিলাম। ভালোবেসে এই প্রতিদান পেলাম সত্যি আজ যা হয়েছে শাহীনের প্ল্যানিং-এ হয়েছে। আমাকে সিড়ি দিয়ে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে অর্ধেক গিয়ে আটকে না গেলে আমি মারা যেতাম হয়তো।

রাকা জানান, শাহীন এক বছর আগে তার সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করে। বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড় তোলে। শাহীন তার পরিবার নিয়ে নাকি সন্তুষ্ট নন, তাই রাকার সঙ্গেই থাকবেন বলে প্রেমে জড়ান। শুধু তাই নয়, রাকার কাছ থেকে নাকি টাকা-পয়সাও হাতিয়ে নিয়েছেন শাহীন।

রাকা বিশ্বাসের ভাষ্যে, শাহীন এক বছর আগে আমার পেছনে ঘুরে ঘুরে বিয়ে করার প্রমিজ করে আমাকে কনভিন্স করেছে। নিজের বৌ-মেয়ে সম্পর্কে অনেক বাজে কথা বলেছে। বলেছে সে সুখী নয়, মায়া হয়েছিল তাই ভালোবেসেছিলাম এটাই আমার অপরাধ?

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি জাতিসংঘে যাওয়ায় সরকার আতঙ্কিত - ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?