মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ০৬:৩৭:৩০

গর্ভাবস্থায় নারীরা যে পানীয় খাবেন

গর্ভাবস্থায় নারীরা যে পানীয় খাবেন

স্বাস্থ্য ডেস্ক : গর্ভাবস্থায় অনেক নারীদেরই শারীরিক কষ্টের মধ্য দিয়ে যেতে হয়। খাবার খেতে ভাল না লাগলেও তার নিজের ও গর্ভস্থ সন্তানের স্বাস্থ্যের জন্য বিভিন্ন ধরনের খাবার খান যা হয় তো তিনি আগে খাননি। আজ দেয়া হলো এমনই কিছু পানীয় নাম যা গর্ভাবস্থায় হবু মায়ের ও তার সন্তানের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি।

গাজরের জুস হবু মায়েদের খেতে ভাল না লাগলেও, প্রতি দিন এক গ্লাস এই জুস খাওয়া খুবই ভাল। এর ভিটামিন সি ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীরে কোষ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এমন কি রঙিন খাবার বলে এটি মায়ের ও সন্তানের চোখের জন্যও ভাল।

ডাবের পানি শরীর ঠাণ্ডা করতে খুবই ভাল কাজ করে। শরীরের ইলেকট্রোলাইটস ও মিনারেল সল্ট বজায় রাখতে সাহায্য করে। এমন কি এতে পটাশিয়াম ও আয়রন পাওয়া যায়।

ফ্রুট মকটেল ফলের এক ধরনের পানীয়। যদিও অনেকেই মকটেল বলতে বোঝেন অ্যালকোহল। তবে মকটেল কোমল পানীয়র সঙ্গে ফলের রস মিশিয়ে তৈরি করা হয়। আর কেউ যদি কোমল পানীয় কেউ খেতে না পারেন তবে লেবুর রস ও পানির সাথে মিশিয়ে খেতে পারে। ছাঁচ এক ধরনের পানীয় যা চিনি বা লবণ দিয়ে খেতে বেশ ভাল লাগে। এটি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে বেশ ভাল কাজ করে।

গর্ভাবস্থায় অনেক নারী আছেন সকালে গরম চা বা দুধ খেতে পারেন না। আর এই অবস্থায় কফি না খাওয়াই ভাল। তখন চাইলে আইস টি খেতে পারেন। এই পানীয় আপনাকে একটা ফ্রেশ অনুভূতি দেবে।

গর্ভাবস্থায় দুধ সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ পানীয়। এটি ক্যালসিয়াম, ভিটামিন বি১২ ও প্রোটিনে ভরপুর। মায়ের ও সন্তানের জন্য এই পানীয় বিকল্প নেই।

লেমনেডে প্রচুর ভিটামিন সি পাওয়া যায়। এমন কি ঠাণ্ডা লেমনেড শরীরকে ডিটক্স করতে সাহায্য করে।

স্মুদি তৈরি করা হয় বিভিন্ন ফল দিয়ে। যার মধ্যে থাকে ভিটামিন, মিনারেল ও প্রোটিন। নিজের পছন্দের ফল দিয়েই তৈরি করতে পারেন স্মুদি।

সন্তান হওয়ার আগে অনেকেরই দুধ হজম হয় না। তারা অনায়াসেই খেতে পারেন সয়ামিল্ক যা প্রোটিন ও ক্যালসিয়ামে ভরপুর।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি জাতিসংঘে যাওয়ায় সরকার আতঙ্কিত - ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?