বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৭, ০৬:২৯:৫১

হলফনামায় মিথ্যা তথ্য: এমপি সালাউদ্দিনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ

হলফনামায় মিথ্যা তথ্য: এমপি সালাউদ্দিনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ

ঢাকা : নির্বাচনী হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দেয়ার অভিযোগে ময়মনসিংহ-৫ আসনের এমপি সালাউদ্দিন মুক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে সুপারিশ পাঠিয়েছে দুদক।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কর্তৃক নির্বাচন কমিশনে দেয়া এই সংক্রান্ত এক চিঠিতে বলা হয়েছে, সংসদ সদস্য মুক্তি নির্বাচন কমিশনে হলফনামার মাধ্যমে দাখিল করা বিবরণীতে সম্পদ কম দেখিয়ে অসত্য তথ্য দিয়েছেন।

দুদকের সচিব মো. শামসুল আরেফিন স্বাক্ষরিত চিঠিটি ৭ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে পাঠানো হয়েছে।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে ২০১৩ সালের ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্রের সঙ্গে হলফনামার মাধ্যমে আট তথ্য জমা দেন সাংসদ সালাউদ্দিন। সেখানে তিনি তাঁর স্থাবর ও অস্থাবর মিলে মোট সাড়ে চার লাখ টাকার সম্পত্তি আছে বলে উল্লেখ করেন। কিন্তু দুদক বলছে নির্বাচন কমিশনে সম্পদের হিসাব দেওয়ার আগে গত ৩০ জুন ২০১৩ সালে উপ–কর অঞ্চল সার্কেল-৬–এ (মুক্তাগাছা) স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ ৫৬ লাখ ৪ হাজার বলে উল্লেখ করেন। তা ছাড়া সাংসদ তাঁর বাবার কাছ থেকে পাওয়া তিন লাখ টাকার সম্পদের তথ্যও নির্বাচন কমিশন এবং আয়কর বিবরণীতে উল্লেখ করেননি। দুদক এ ধরনের অসত্য হলফনামা দাখিলকে নৈতিকতা পরিপন্থী বলে উল্লেখ করেছে।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ আইন (আরপিও) অনুযায়ী, হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দিলে ভোটের আগে এ তথ্য প্রমাণিত হলে নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করতে পারে। আর ভোটের পর কোনো তথ্যের অমিল পেলে সংশ্লিষ্ট সংসদ সদস্যের সদস্যপদ বাতিল করতে পারে। এ জন্য সংসদ সদস্য পদ বাতিল করে তা স্পিকারের দপ্তরে পাঠানোর ক্ষমতা রয়েছে কমিশন। এরপর সংসদ সচিবালয় ওই আসন শূন্য ঘোষণা করতে পারে।



আজকের প্রশ্ন