শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৫ জুলাই, ২০১৮, ০৯:০৫:৫৬

সেচ ব্যবস্থার উন্নয়নে ৪৫.৪ মিলিয়ন ডলার দেবে এডিবি

সেচ ব্যবস্থার উন্নয়নে ৪৫.৪ মিলিয়ন ডলার দেবে এডিবি

ঢাকা : এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) বাংলাদেশে সেচ কাজের উন্নয়নে ৪৫.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ সহায়তা দেবে। এর মধ্যে বিদ্যুৎ ব্যবস্থার দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্পে ঋণ হিসেবে ২০ মিলিয়ন মাকির্ন ডলার এবং সেচ কাজের জন্য সুপার অফ-গ্রিড সোলার ফটোভোল্টাইক (এসপিভি) পাম্পিংয়ে মঞ্জুরি সহায়তা হিসেবে ২০ মিলিয়ন মাকির্ন ডলার দেয়া হবে।

এডিবি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কৌশলগত জলবায়ু তহবিলের অধিন নিম্ন-আয়ের দেশসমূহ কর্মসূচিতে নবায়নযোগ্য জ্বালানি বৃদ্ধি করতে ২২.৪৪ মিলিয়ন ডলার মঞ্জুরি এবং এডিবি পরিচালিত ক্লিন এনার্জি ফাইন্যান্সিং পাটনারশীপ ফ্যাসিলিটির অধিন সহায়তা ভিত্তিক ক্লিন এনার্জি ফান্ড থেকে ৩ মিলিয়ন ডলার দেয়া হবে।

এডিবি’র সিনিয়র জ্বালানি বিশেষজ্ঞ আইমিং ঝু বলেন, বাংলাদেশের পল্লী এলাকার দরিদ্র্য চাষীদের জন্য সেচ কাজে ব্যবহারের জন্য উচ্চ মূল্যের ডিজেল খরচ সক্ষমতার মধ্যে পড়ে না এবং টেকসইও নয়। পল্লীর যেসব এলাকায় গ্রিড বিদ্যুৎ পযার্প্ত নয়, সেখানে সেচ কাজে বিকল্প হিসেবে সোলার প্যানেল ব্যবহার হয়ে থাকে। প্রকল্পটি জ্বালানি চাহিদা মেটাতে সহায়তা করবে। জনগণের জীবন মান উন্নয়ন করবে। সেচ কাজ এবং অন্যান্য কৃষি কাজে ডিজেলের ব্যবহার হ্রাস করবে।

দেশে উৎপাদিত মোট বিদ্যুতের ৪.৫৮ শতাংশ সেচ কাজে ব্যবহার হয়। চাষিরা উচ্চমূল্যে গ্রীড বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে বাধ্য হয়। দেশে ১১.০৬ মিলিয়ন চাষি সেচ কাজের জন্য পাম্প চালাতে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে। এতে প্রতি বছরে এক মিলিয়ন টন ডিজেলের প্রয়োজন হয়। এডিবি’র এই অর্থ যে সকল এলাকায় বিদ্যুৎ নেই, সেখানে কমপক্ষে ২০০০ এসপিভি পাম্প স্থাপনে সহায়ক হবে।

প্রকল্প এলাকায় জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে কর্মশালাসহ ব্যাপক প্রচারণা চালানো হবে। ডিজেল পাম্পের স্থলে এসপিভি পাম্প স্থাপন করা হবে।



আজকের প্রশ্ন