বুধবার, ১৮ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ০৭ জুলাই, ২০১৮, ১১:০২:২০

ফেসবুকে প্রেম, বিয়ের আসরে যুগল! অতঃপর...

ফেসবুকে প্রেম, বিয়ের আসরে যুগল! অতঃপর...

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের কল্যাণে অনেকেই প্রেমের সম্পর্কে জড়ান। এখন এই রকম ঘটনা অহরহ ঘটছে। প্রথমে ফেসবুকে পরিচয়, এরপর প্রেম, বিয়ে পর্যন্ত গড়াচ্ছে। কিন্তু কিছু দিন পরেই ভয়ঙ্কর সব খবর পাওয়া যায়। সমাজে প্রায়ই এমন ঘটনা ঘটছে।

সম্প্রতি এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে। ফেসবুকে প্রেমের পর তা গড়িয়েছিল বিয়ের মণ্ডপ পর্যন্ত। কিন্তু চার হাত এক হওয়ার আগেই মণ্ডপে হাজির পুলিশ। বাসরঘরে নয়, হবু বরকে যেতে হলো শ্রীঘরে!

ভারতের ধুবুরি জেলায় এই ঘটনাটি ঘটেছে।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের সন্দেহ গজেন্দ্র নামে রাজস্থানের ওই বাসিন্দা নারী পাচারে যুক্ত। বিয়ের ফাঁদ পেতে মেয়েদের ভিন্ন জায়গায় নিয়ে যাওয়াই তাদের কাজ।

এদিকে, ধুবুরির জেলা শাসকের দফতরে কাজ করেন শোভা বাসফর। তার সঙ্গে ফেসবুকে আলাপের পরে গজেন্দ্র জানিয়েছিল, তার বাড়ি তেজপুরে। পরে জানায় বাড়ি তিনসুকিয়ায়। দীর্ঘ ১০ মাস ফেসবুকে প্রেম চলার পর শোভাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় গজেন্দ্র। বিয়ের আগে গজেন্দ্র জানায় আসলে সে মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা।

গত বৃহস্পতিবার বর (গজেন্দ্র) ও তার দুই বন্ধু শোভাকে বিয়ে করতে ধুবুরি আসে। কিন্তু পাত্রীর বন্ধুরা পাত্রের কাছে পরিচয়পত্র ও ঠিকানার প্রমাণপত্র চায়। এসময় গজেন্দ্র কিছুই দেখাতে পারেনি।

পরে মেয়ের বাড়ি থেকে পুলিশে খবর দেয়া হয়। পুলিশ বর বেশে গজেন্দ্র ও তার দুই বন্ধু অশোক কুমার ও অমিত আনন্দকে গ্রেফতার করে।



আজকের প্রশ্ন