রবিবার, ২১ জানুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০১৮, ০১:২৪:১৩

মিসাইল হামলার ভুল বার্তা ছড়ালো ভীতি

মিসাইল হামলার ভুল বার্তা ছড়ালো ভীতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ‘ব্যালেস্টিক মিসাইল হুমকি হাওয়াইয়ের দিকে ছুটছে। দ্রুত আশ্রয় খুঁজে নিন। এটা কোনও প্রশিক্ষণ নয়।’ গতকাল শনিবার সকালে মোবাইল ফোনে এই জরুরি সতর্ক বার্তা পান যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই রাজ্যের বাসিন্দারা। রেডিও আর টেলিভিশনের প্রচারিত হয় একই ধরনের সতর্কতা। এরপর ভীতি ছড়িয়ে পড়ে পুরো রাজ্য জুড়ে।

পরে বার্তাকে ভুয়া বলে ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। এরপর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসে। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির সূত্রে এ খবর জানা যায়।

গতকাল শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৭ মিনিটে এই বার্তা হাওয়াইয়ের বাসিন্দাদের মোবাইল ফোনে যায়। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম হনলুলু স্টার অ্যাডভারটাইজারের খবরে বলা হয়, মোবাইল বার্তার ১৮ মিনিট পরই ইমেইল পাঠিয়ে বাসিন্দাদের জানানো হয় বার্তাটি ভুয়া।

গতবছরের শেষ দিকে উত্তর কোরিয়া পুরো যুক্তরাষ্ট্র তাদের মিসাইলের আওতায় রয়েছে বলে হুমকি দেওয়ার পর হাওয়াইতে নতুন করে মিসাইল সতর্কতা সিস্টেম চালু করা হয়। ওই বছরের ডিসেম্বরে ওই সতর্কতা সিস্টেমের পরীক্ষাও চালায় যুক্তরাষ্ট্র।

শনিবার সিস্টেম থেকে ভুল বার্তা দেওয়ায় রাজ্যের গভর্নর ডেভিড আইজ বাসিন্দাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। তিনি বলেছেন, একজন কর্মী ভুল বোতামে চাপ দেওয়ায় এই বার্তা ছড়িয়ে পড়ে।

তবে পুরো ঘটনা তদন্ত করে দেখবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন সরকার।

গভর্নর ডেভিড আইজ এই ঘটনাকে মানবিক ভুল বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, রাজ্যের জরুরি ব্যবস্থাপনা এজেন্সিতে দিনে তিনটি শিফটে কাজ চলে। এদিন কর্মীদের শিফট পরিবর্তনের সময় পুরো সিস্টেমকে কাজ করছে কি না নিশ্চিত হতে গিয়ে ভুল বোতামে চাপ পড়ে যায়। তাই এই বার্তা ছড়িয়ে পড়ে।

রেডিও আর টেলিভিশনে রেকর্ড করা জরুরি বার্তা পড়ে শোনানো হয়। তাতে বাসিন্দাদের ঘরের ভেতরে অবস্থানের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এই বার্তা ছড়িয়ে পড়ার পর রাজ্য জুড়ে যে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয় তার অনেক উদাহরণ অনেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন।

গত মাসে হনলুলু স্টার এডভারটাইজার এর খবরে জানানো হয়েছিলো উত্তর কোরিয়া থেকে ছোঁড়া একটি মিসাইল হাওয়াইতে পৌঁছাতে ২০ মিনিট সময় লাগবে।

 

আজকের প্রশ্ন

শিক্ষা অধিদফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। জাতির জন্য এমন পরামর্শ ভয়ানক নয় কি?