শনিবার, ২১ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৮ জুন, ২০১৮, ১১:৪১:৩১

বিশ্বকাপে রাশিয়ান তরুণীদের সেক্স নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

 বিশ্বকাপে রাশিয়ান তরুণীদের সেক্স নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফুটবল বিশ্বকাপ উপভোগ করতে লাখ লাখ বিদেশি দর্শক আসেন। আর এই দর্শকদের মনোরঞ্জন করতে সেক্স কালচার চালু আছে এখনো। তাই যে দেশে খেলা অনুষ্ঠিত হয় সেখানকার তরুণীরা সাধারণত বিদেশি পর্যটকদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করে থাকেন।

তবে এর বাইরে থাকতে চেয়েছিল রাশিয়া। তাই রাশিয়ান রাজনীতিক, পার্লামেন্টের পরিবার, নারী ও শিশু বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান তামারা প্লেটনিওভা রাশিয়ান তরুণীদের বিদেশিদের সঙ্গে সেক্স না করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু বিষয়টি ভাল মনে হয়নি দেশটির প্রেসিডেন্ট পুতিনের কাছে। তিনি তামারার ওই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

পুতিন বলেন, বিদেশি পর্যটকরা এসেছেন রাশিয়ায় বিশ্বকাপ উপভোগ করতে। তাদের সঙ্গে রাশিয়ান নারী বা যুবতীদের সেক্স নিষিদ্ধ থাকতে পারে না।

তামারা রাশিয়ান নারীদের সতর্ক করে বলেছিলেন, তারা যেন বিদেশি পর্যটকদের শয্যাসঙ্গী না হন। কারণ এতে দেশে সিঙ্গেল মায়ের সংখ্যা বেড়ে যাবে। এ ছাড়া এইচআইভিতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি তো আছেই। তার মধ্যে অর্থের লোভে পড়ে বা প্রেমে পড়ে যেভাবেই হোক রাশিয়ান নারীদের এমন অসামঞ্জস্যপূর্ণ সম্পর্কে জড়ানোর কোনো শুভ অর্থ হতে পারে না।

কিন্তু শেষ অবধি তামারার এসব যুক্তি পুতিনের কাছে গ্রহণযোগ্য হয়নি। তিনি বললেন, রাশিয়ান নারীদের ওপর কোনো সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেয়া যাবে না।

পুতিনের মুখপাত্র, সাবেক প্রেসিডেন্ট দমিত্রি মেদভেদেভ বলেছেন, সব দেশই একে অন্যকে বর্ণবাদী, সমকামী হিসেবে আখ্যায়িত করে। এ নিয়ে বিশ্বকাপে নাক গলানোর কিছু নেই।

এই বিভাগের আরও খবর

  ইসরাইলকে ইহুদি রাষ্ট্র ঘোষণার প্রতিক্রিয়া কী হবে?

  সবাইকে টপকে যাচ্ছে তুরস্ক!

  পুতিনকে প্রত্যাখ্যান করলেন ট্রাম্প

  পার্লামেন্টে মোদিকে জড়িয়ে ধরলেন রাহুল

  দ. কোরিয়ার সাবেক নারী প্রেসিডেন্টের আরও ৮ বছর সাজা

  বসনিয়ায় একসঙ্গে ৬০ জোড়া মুসলিম যুবক-যুবতীর বিবাহ অনুষ্ঠিত

  বাংলাদেশ নিশ্চিত করেছে সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমণ কড়া হাতে দমন করবে: সুষমা

  পুতিনকে যুক্তরাষ্ট্র সফরের আমন্ত্রণ জানালেন ট্রাম্প

  বাংলাদেশে হিন্দুদের সংখ্যা বেড়েছে : সুষমা

  দ.সুদানের গৃহযুদ্ধ অবসানে শান্তি চুক্তি মানতে প্রস্তুত সালভা কির

  ‘আনোয়ার একটি প্রতিষ্ঠান, তাকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিততে দিন’

আজকের প্রশ্ন

খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটকে ‘প্রহসন’ বলেছেন বিএনপি ও বামপন্থিরা। আপনি কি একমত?