বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ১১:৫৩:০৮

রায়ে হস্তক্ষেপ নেই কীভাবে বিশ্বাস করবে মানুষ?’

রায়ে হস্তক্ষেপ নেই কীভাবে বিশ্বাস করবে মানুষ?’

দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের যে রায় দিয়েছে আদালত তাতে সরকারের হস্তক্ষেপ রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক এবং টক শো’র পরিচিত মুখ আসিফ নজরুল।  

 

 

রবিবার সকালে আসিফ নজরুল তার ফেসবুক পেইজে লিখেন-

‘তিনবার বেগম খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। বহু মানুষ বিশ্বাস করে যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হতো এখনও তিনি থাকতেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। সবাই হেরেছে কিন্ত কোনদিন কোন নির্বাচনে হারেননি তিনি।

এই জনপ্রিয়তম রাজনীতিককে ৭৩ বছর বয়েসে রাখা হয়েছে পরিত্যক্ত এক জেলখানায়। স্যাঁতসেঁতে এক ঘরে। তাকে নাকি দেয়া হয়েছে সাধারণ কয়েদিদের খাবার আর পোশাক! চিন্তা করা যায় এসব!

এতো ক্ষোভ আর এতো রাগ যায় বিরুদ্ধে তার বিচারে সরকার হস্তক্ষেপ করেনি কীভাবে বিশ্বাস করবে মানুষ?’

২০০৮ সালে দুদকের দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় ঢাকার একটি বিশেষ আদালত। এই মামলায় খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানসহ বাকি পাঁচ আসামিকে দেয়া হয়েছে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড।

রায় ঘোষণার পরপরই খালেদা জিয়াকে নিয়ে যাওয়া হয় নাজিম উদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে। সেখানে তাকে সাধারণ কয়েদিদের মতো রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। গতকাল শনিবার বিকালে পাঁচ জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বেরিয়ে সাংবাদিকদের জানান, খালেদা জিয়াকে রাখা হয়েছে স্যাঁতসেঁতে একটি ঘরে। তাকে যে খাবার দেয়া হচ্ছে সেটাও ‘অখাদ্য’। তাকে ডিভিশন দেয়া হয়নি। সার্বক্ষণিক কাজের মেয়ে ফাতেমাকেও সঙ্গে নেয়ার অনুমতি মেলেনি। এতে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী অনেক কষ্টে আছেন বলে দাবি করেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি জাতিসংঘে যাওয়ায় সরকার আতঙ্কিত - ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?