মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১১:৩৪:৪০

মিয়ানমার প্রথমে হিন্দু রোহিঙ্গাদের কেন ফেরত নিচ্ছে?

মিয়ানমার প্রথমে হিন্দু রোহিঙ্গাদের কেন ফেরত নিচ্ছে?

নিউজ ডেস্ক:আগামী ২২ জানুয়ারি থেকে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরু হবে৷ তবে মিয়ানমার ঘোষণা দিয়েছে, তারা শুরুতে মাত্র ৪৫০ জন হিন্দু রোহিঙ্গাকে ফেরত নেবে৷ মিয়ানমারের এই ঘোষণা কেন? এর নেপথ্যেই বা কী?
বুধবার মিয়ানমারের সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসনমন্ত্রী ড. উইন মিয়াত আইয়ি নেপিদোতে মিয়ানমারের জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠকে জানিয়েছেন, প্রত্যাবাসনের প্রথম ধাপে, অর্থাৎ ২২ জানুয়ারি ৪৫০ জন হিন্দু শরণার্থীকে বাংলাদেশ থেকে ফেরত নেয়া হবে৷
মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল নিউ লাইটস অফ মিয়ানমার এ খবর দিয়ে বলেছে, মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান পুরো প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়াকে স্বচ্ছ রাখার তাগিদ দিয়েছেন৷
এদিকে প্রথম দফায় ফেরত পাঠানোর জন্য প্রায় এক লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীর নাম তালিকাভূক্ত করেছে বাংলাদেশ৷
শুক্রবার দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং ও বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ শেষে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের জানান, ‘‘আগামী ২২ জানুয়ারির মধ্যে এক লাখ রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারের ফেরত পাঠানো হবে৷
এ জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার৷ ইতিমধ্যে এর জন্য একটি ‘ওয়ার্কিং গ্রুপ' গঠন করা হয়েছে৷ ওয়ার্কিং গ্রুপের মাধ্যমে আজ-কালের মধ্যে এক লাখ রোহিঙ্গার তালিকা মিয়ানমার সরকারকে হস্তান্তর করা হবে৷''

আজকের প্রশ্ন

শিক্ষা অধিদফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। জাতির জন্য এমন পরামর্শ ভয়ানক নয় কি?