ঢাকা, বুধবার ২৬শে জুলাই ২০১৭ - 

গোপনে সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয়ের কাজ করছে জামায়াত

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 বৃহঃস্পতিবার ২০শে এপ্রিল ২০১৭

ঢাকা: দীর্ঘদিন ধরেই মাঠের রাজনীতিতে নীরবতা পালন করছে জামায়াতে ইসলামী। কেবলমাত্র ইস্যুকেন্দ্রিক গণমাধ্যমে বিবৃতি পাঠানো ছাড়া রাজনৈতিক তেমন কোন কর্মসূচিও নেই জামায়াত-শিবিরের। গত বছরের শেষের দিকে দলের শীর্ষ কয়েকজন নেতার ফাঁসি কার্যকরের প্রতিবাদে হরতালের ডাক দিলেও রাজপথে কোথাও পিকেটিং করতে দেখা যায়নি জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীদেরকে।

এক দিকে জামায়াতের নিবন্ধন বাতিলের চেষ্টা অন্যদিকে রাজনীতির কোণঠাসায় পড়ে স্বাভাবিক ভাবে নীরবতা দেখাচ্ছে তারা। তবে বাস্তবে তারা ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে সাংগঠনিক শক্তিতে শক্তিশালী করে তুলছে। সারাদেশেই গোপনে তাদের সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয়ের কাজ করছে দলটি।

খোজ নিয়ে জানা যায়, ২০ দলীয় জোটের সঙ্গে সম্পর্ক, কর্মসূচি কোথাও দেখা যায় না দলটির নেতাকর্মীদের। এমনকি আগে গোপনে বৈঠক করার যে ধারাটি ছিল, এখন আর সেটিও সেভাবে হচ্ছে না। রাজনীতির মাঠে ‘সুসংগঠিত’ দল হিসেবে পরিচিত জামায়াতে ইসলামী দীর্ঘদিন ধরে চুপ থাকার পেছনে অনেক কারণ রয়েছে।

মাঠের রাজনীতি অনুকূলে না থাকায় নেতাকর্মীদের মন এখন দল গোছানোর দিকে। কেন্দ্রের নির্দেশনা মতো আনুষ্ঠানিক বৈঠকের বদলে নানা কৌশলে সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয়ের জন্য ভেতরে ভেতরে সারা দেশে কাজ চলছে দলটির। আগে গোপনে বৈঠক করার যে ধারাটি ছিল, সেটিও এখন আর সেভাবে হচ্ছে না। তবে আগের মতো আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ করতে না পারলেও বসে নেই দলটির নেতাকর্মীরা। বর্তমান অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্র থেকে দেয়া নির্দেশনা অনুযায়ী, তৃণমূল পর্যায়েও ভিন্ন কৌশলে চালানো হচ্ছে সাংগঠনিক কার্যক্রম। কখনো কখনো সবার কাছে দলীয় সিদ্ধান্ত পৌঁছে যাচ্ছে ব্যক্তিগত আলাপে। কখনো আবার আড্ডার ফাঁকে সেরে নেয়া হয় সাংগঠনিক আলাপ।

সূত্র জানায়, আত্মগোপনে থাকা কেন্দ্রীয় নেতারাও বিভিন্ন কৌশলে বিভিন্ন স্থান সফর করছেন। ইতোমধ্যে দলের সর্বোচ্চ ফোরাম কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ, কর্মপরিষদ ও মজলিশে শুরায় সারা দেশ থেকে বাছাই করা তরুণ নেতাদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে সারা দেশে দলের গুরুত্বপূর্ণ শাখা কমিটিগুলোতেও তরুণদের অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে। জামায়াতের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বর্তমান পরিস্থিতিতে রাজপথের আন্দোলনের পরিবর্তে সাংগঠনিক মূলকাজ তথা দাওয়াতি কাজের দিকে বেশি জোর দিচ্ছে দলটি। পাশাপাশি চলছে অন্যান্য কার্যক্রমও।

সূত্রে জানা যায়, জামায়াতের নিবন্ধন নিয়ে সরকার শেষ পর‌্যন্ত কী সিদ্ধান্ত নেয় সেদিকে তাকিয়ে আছে দলটির শীর্ষ নেতারা। নিষিদ্ধ হলে কোন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে দলটি রাজনীতির মাঠে থাকবে সে ব্যাপারেও চিন্তাভাবনা অনেকটা চূড়ান্ত করে রেখেছে। জামায়াত ইসলামী দলটি নিষিদ্ধ হলে তার তরুণ নেতৃত্বকে সামনে এনে নতুন নামে রাজনীতির মাঠে নামার চিন্তা করছে।

এদিকে জামায়াতের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে বিএনপি এমনটাই দাবী করে ২০দলীয় জোটের এমন শরিক দলের নেতা জানান, জামায়াতের ব্যাপারে সরকারের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে আছে বিএনপির নেতাকর্মীরা। কারণ জামায়াত নিষিদ্ধ হলে নতুন নামে নতুন নেতৃত্বে দল পরিচালনা করবেন তারা।

নাম প্রকাশ করা না শর্তে জামায়াতের এক নেতা জানান, দেশে বর্তমানে যে পরিস্থিতি রিরাজমান তাতে আমরা কোথাও বসতে পারছি না। নেতাকর্মীরা জড়ো হতে পারছি না। যে হারে গ্রেফতার, গুম, খুন, নির্যাতন-নিপীড়ন চলছে। তাতে প্রকাশ্যে নেতারা মাঠে নামতে চায় না। এদিকে সংগঠনের কর্মকান্ড ও বন্ধ রাখা যাবে না। তাই পুলিশের গ্রেফতার এড়িয়ে চলতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন উপায়ে আড্ডার ফাঁকে কিছু নেতাকর্মী জড়ো হয়ে দলের সাংগঠনিক তথ্য আদান-প্রদান করছি। এভাবে দলের নির্দেশনা নেতাকর্মীদের কাছে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। বর্তমান সময়ের চাইতে কঠিন অবস্থার মধ্য দিয়ে জামায়াতকে রাজনীতি করতে হয়েছে। বর্তমানে যেসব কাজ চলছে তা স্বাভাবিক সাংগঠনিক কার্যক্রমেরই অংশ। সরকারের নানা জুলুম-নির্যাতন উপেক্ষা করেই এসব কার্যক্রম চলছে, চলবে। যেহেতু আপাতত সেভাবে কর্মসূচি নেই, তাই সংগঠন গোছানোর দিকেই বেশি মনযোগ দেয়া হচ্ছে।

ইসলামী ছাত্র শিবিরের এক কর্মী জানায়, দলীয় কর্মকান্ড তারা গোপনে গোপনেই করতে হচ্ছে। আপাতত রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার বসবাসরত নেতাকর্মীরা একেক সময় এক পন্থা অবলম্বন করে মিটিং করছে। কখনো কখনো রাতের বেলায় বাসা বাড়িতে জমায়েত হয়ে কার্যক্রম চালাচ্ছে তারা।

এদিকে শীর্ষ নেতাদের ফাঁসি হলেও জামায়াতে নেতৃত্বের সংকট নেই। নতুন করে গঠিত হয়েছে কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ ও কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ। নতুন সদস্য যুক্ত করা হয়েছে কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরায়ও। এর বাইরে নতুন নির্বাচিত নেতৃত্ব ও নতুন নামের বিষয়টি পরিস্থিতির ওপর নির্ভরশীল। তবে সরকারের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে দলটির ভবিষ্যৎ।

প্রেমের ক্ষেত্রে যে ভুলগুলো কখনই করেন না বুদ্ধিমতীরা কখন খাবার খেলে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে? চুয়াডাঙ্গায় মন্দিরের প্রধান ফটকের তালা ভেঙ্গে শিবমুর্তি চুরি নওগাঁ-২ পত্নীতলা-ধামইরহাট আসনে আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও জাপার একাধিক প্রার্থী ভোলায় ভোক্তা অধিকার আইনে পাঁচ ব্যবসায়ীর জরিমানা গোপালগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামীসহ গ্রেফতার-১৯ মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের পর্ষদ সভা ৩০ জুলাই ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ খালেদা জিয়া লন্ডন যাবার পর সরকারের ঘুম হারাম: রিজভী ৫৭ ধারা সাংবাদিক উচ্ছেদের জন্য নয়: তথ্যমন্ত্রী ক্যাটরিনাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন সালমান ঠাকুরগাঁওয়ে বার্ষিক শিশু সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক উৎসব পালিত পরিবারকে ঝামেলায় রেখে তাবলিগে যাওয়া কি ঠিক? ১৫.৮০% ঋণ প্রবৃদ্ধি ধরে মুদ্রানীতি ঘোষণা নারায়ণগঞ্জের ৭ খুন: শুনানি শেষ, রায় ১৩ আগস্ট বিসিবির সংশোধিত গঠনতন্ত্র নিয়ে আপিল নিষ্পত্তি খেলাপি ঋণের ঝুঁকিতে ব্যাংকিং খাত রাজধানীতে ৩ জেএমবি সদস্য আটক ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা আছে এই ফোনে প্রগতি লাইফের লেনদেন বন্ধ বৃহস্পতিবার গাল নরম কোমল গোলাপী করে তুলুন প্রাকৃতিকভাবে পুরুষেরা মেয়েদের যে ৭টি বিষয় প্রথমেই দেখে পিপলস লিজিংয়ের প্রথম প্রান্তিক প্রকাশ লিপস্টিক অনেকক্ষণ ধরে সংরক্ষণের সঠিক নিয়ম বিকিনি পরিহিত ছবি পোষ্ট করে বিপাকে নারী পুলিশ অফিসার! অর্ধশত সংসদ সদস্যের জনপ্রিয়তায় ব্যাপক ধস বাহুবলে ৪ শিশু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ২ জনের ৭ বছরের কারাদণ্ড ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন চলছে সম্ভাব্য অর্ধশতাধিক নতুন প্রার্থীর তালিকা খালেদা জিয়ার হাতে বিপিএল মাতাতে আসছেন লুক রাইট ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের পর্ষদ সভা ৩১ জুলাই স্বামী হত্যার লোহমর্ষক বর্ণনা দিলেন স্ত্রী মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকা জরুরি যে কারণে আল-আকসা মসজিদে জুমার নামাজ নিষিদ্ধ, বাংলাদেশের নিন্দা সকালে দ্রুত শক্তি জোগায় এসব খাবার কুষ্টিয়ায় পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ মিরপুর বেড়িবাঁধে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ সিটিসেলের তরঙ্গ খুলে দেয়া হয়েছে ভারত থেকে গরুর সঙ্গে যেন অস্ত্র না আসে: বিজিবি মহাপরিচালক রাজধানীতে র‌্যাব-ছিনতাইকারী বন্দুকযুদ্ধে গুলিবিদ্ধ ২ ব্যর্থ মানুষদের ঘুমানোর ১৪টি বদ অভ্যাস রাঙিয়ে দিয়ে যাও গো এবার যাবার আগে পুলিশের ১৪ কর্মকর্তা বদলি জেনে নিন বুধবার দিনটি কেমন যাবে? বিএনপি একনায়কতন্ত্রে বিশ্বাস করে না: ফখরুল যুব মহিলা লীগের ১২১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ইতিবাচক ইমেজ তৈরির ১০ কৌশল ঘুমের সমস্যায় বন্ধু বিচ্ছেদ হতে পারে! পাবনায় ইসলামী ব্যাংকের ৩২১তম শাখা উদ্বোধন এই ছবিটি ঘুরছে গোটা ফেসবুক জুড়ে...