ঢাকা, বুধবার ২২শে নভেম্বর ২০১৭ - 

রোজার আগে ‘মূর্তি’ না সরালে ঈদের পর সুপ্রিম কোর্ট ঘেরাও: ইসলামী আন্দোলন

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 শুক্রবার ২১শে এপ্রিল ২০১৭

ঢাকা: রোজার আগেই ভাস্কর্য না সরালে ঈদের পর সুপ্রিম কোর্ট ঘেরাওয়ের হুমকি দিয়েছে চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। দলটির আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেন, ‘মূর্তি’র জায়গা মন্দিরে। সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে মূর্তি সরাতে হবে। ‘মূর্তি’ না সরালে ১৭ রমজান সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে।’ শুক্রবার জুমার নামাজের পর বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেন, ‘স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব নিয়ে আমরা শঙ্কিত। জাতীয় ঈদগাহের পাশে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে গ্রিক দেবীর ‘মূর্তি’ স্থাপন করে মুসলমানদের ধর্মীয় চেতনায় সবচেয়ে বড় আঘাত হানা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘মূর্তি’ কিভাবে এলো, কোথায় থেকে এলো, কে বসালো, তিনি তা জানেন না। শুনেছি প্রধান বিচারপতির একক সিদ্ধান্তে ‘মূর্তি’ স্থাপিত হয়েছে। কাদের স্বার্থে গ্রিক ‘মূর্তি’ সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে স্থাপন করা হলো? এটা জনতার প্রশ্ন। প্রধান বিচারপতির গ্রিক দেবীর প্রতি কোনও ভক্তি বা অনুরাগ থাকলে এটি তার ব্যক্তিগত বিষয়। তার এ পছন্দকে তিনি জাতীয়ভাবে চাপিয়ে দিতে পারেন না। ‘মূর্তি’ স্থাপন করে তিনি দেশের সংবিধান রক্ষার শপথ নিয়ে সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। এমন একজন বিতর্কিত ও বিচারপতি বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতির আসনে থাকতে পারেন না। বিতর্কিত বিচারপতি এস কে সিনহার পদত্যাগ করা উচিত।’

মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেন, ‘‘সংখ্যাগরিষ্ঠ খ্রিস্টান অধ্যুষিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের সামনেও সর্বোচ্চ আইনদাতা হিসেবে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর নাম স্থাপিত আছে। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্টের সামনে গ্রিক দেবী লেডি জাস্টিস-এর ‘মূর্তি’ স্থাপন করে মুসলিম সাংস্কৃতিক চেতনা ধ্বংসের অপচেষ্টা করা হচ্ছে। মাটি বা ধাতবের তৈরি ‘মূর্তি’ ন্যায় বিচারের প্রতীক হতে পারে না। কারণ ‘মূর্তি’র বাকশক্তি ও বোধশক্তি নেই, রায় দিতে পারে না। সৃষ্টিকর্তা ও তার নাজিল করা কুরআন হচ্ছে ন্যায় বিচারের প্রতীক। আল্লাহ ন্যায় বিচারের সব পদ্ধতি পবিত্র কুরআনে লিপিবদ্ধ করেছেন। আর আল্লাহর রাসুল (সা.) তা পরিপূর্ণ বাস্তবায়ন করেছেন। এ জন্যই তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ন্যায় বিচারক রূপে প্রতিষ্ঠিত।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে রেজাউল করীম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যাদের খুশি করার জন্যে সংবিধানের মূলনীতি থেকে আল্লাহ ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস তুলে দিয়ে ধর্মনিরপেক্ষাতা বসালেন, তারা আগামী নির্বাচনে আপনাকে ভোট দেবে না।’

পূর্ব ঘোষিত এই মহাসমাবেশের জন্য সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের অনুমতি না দেওয়ায় সমালোচানা করেন মুহাম্মাদ রেজাউল করীম।

মহাসমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করীম, মাওলানা আব্দুল হক আজাদ, মাওলানা আব্দুল আউয়াল পীর সাহেব খুলনা, মহাসচিব মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব- অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, হাফেজ মাওলানা নেয়ামতুল্লাহ আল ফরিদী, প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম প্রমুখ।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন




Advertisement
অবশেষে পদত্যাগ করলেন জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট মুগাবে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচে রংপুরের জয় কেমন যাবে আপনার বুধবার দিনটি! জেলা জজ ও যুগ্ম জজসহ ২৫ বিচারকের রদবদল কেঁদে ফেললেন ঐশ্বরিয়া রাই এবার নাচলেন ও গাইলেন এমপি শামীম ওসমান যৌন হয়রানির শিকার উত্তর কোরিয়ার নারী সৈন্যরা অবৈধভাবে গাড়ি পার্কিং ও বড়বড় খানা খন্দের কারনে বাড়ছে দূর্ঘটনা, অকালে ঝরছে প্রান আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সহ ২০ জনকে আদালতের শোকজ জাবিতে ভর্তি হতে এসে আরো দুই শিক্ষার্থী কারাগারে জাবিতে ৫ম ম্যানেজমেন্ট উইক শুরু বুধবার আমতলী ও তালতলী উপজেলায় ৫১টি বিদ্যালয়ের ভবন জরাজীর্ন: শিক্ষক নেই ২৬০ জন মওদুদের বক্তব্য গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ : হানিফ জনগণ থেকে সরকার সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে: মির্জা ফখরুল বরিশালে তারেক রহমানের জন্ম দিন পালন ফার্ম্মাসিষ্ট জটিলতায় বাড়ছে ড্রাগলাইসেন্স বিহীন ফার্ম্মেসী ইবির ভর্তি পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ সূচী প্রকাশ অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন কুমিল্লার মেয়র সাক্কু প্রেমের ফাঁদে স্কুলছাত্রীকে আ.লীগ নেতার একাধিকবার ধর্ষণ বিয়ের রাতে পালালেন সাবিলা নূর! পায়ের ওপর পা দিয়ে বসলে কুঁজো হয়ে যেতে পারেন চিরকাল যৌবন ধরে রাখবে যেসব খাবার যে কাজগুলোই প্রতিনিয়ত ক্ষতি করছে মস্তিষ্কের প্রাথমিক সমাপনীতে নাতির সঙ্গে ৬৫ বছরের নানী অর্থনৈতিক সঙ্কটের মুখে তুরস্ক, কাটিয়ে ওঠার আশাবাদ এরদোগানের নিজেকে আরো সুন্দর করে তুলতে ব্যবহার করুন এই ৭ তেল পুলিশ পাহারায় খোলা জায়গায় ভারতীয় মন্ত্রীর মূত্রত্যাগ টিকল না ১০ নম্বর সম্পর্কও? সুস্মিতার বয়ফ্রেন্ডের তালিকা... নাইজেরিয়ায় মসজিদে হামলা: নিহত অন্তত ৫০ লেনদেনের শীর্ষে লংকাবাংলা ফিন্যান্স বাজারে আইলাইফের নতুন ল্যাপটপ আ.লীগ নেতার অভিযোগ: খালেদার গাড়িবহরে হামলার নেপথ্যে নিজাম হাজারী তবু চলছে সৌদি হামলা; আরো ১২ ইয়েমেনি নিহত মাদ্রাসার কক্ষ থেকে হাত বাঁধা ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার খাগড়াছড়িতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন শ্রাবন্তীর ‘বয়ফ্রেন্ড’ শাকিব খান ‘৪০টির বেশি আসন পাবে না আ’লীগ’ ‘শিগগিরই নতুন বিচারপতি নিয়োগ’ স্বামী-স্ত্রীর দ্বন্দ্বের জের ধরে মারপিট: উভয় পক্ষের আহত ৬ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ: আ‘লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা কলাপাড়ায় তারেক রহমানের জন্মদিন পালন কলাপাড়ায় প্রসুতী রোগীর মৃত্যুর পর ফের আলোচনায় আলেয়া ক্লিনিক পুঁজিবাজারে দর সংশোধন ‘নতুন করে ট্রেড ইউনিয়নের অনুমতি দেওয়া হবে না’ রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চলতি সপ্তাহেই সমঝোতা: সু চি সোনিয়ার বর্ণাঢ্য যুগ ৬ কোম্পানির লেনদেন স্থগিত বুধবার ‘ইসরাইলকে প্রতিহত করার পূর্ণ অধিকার লেবাননের রয়েছে’ ‘নির্বাচনের আগেই দেশে ফিরবেন তারেক রহমান’ ‘সিনহা যাওয়ায় বিচার বিভাগের কাজ দ্রুত এগোচ্ছে’