ঢাকা, মঙ্গলবার ২২শে আগস্ট ২০১৭ - 

‘ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত মেয়েদের জন্য আতঙ্ক’

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 বুধবার ১৭ই মে ২০১৭

ঢাকা: ভারতে শিশুদের অধিকার নিয়ে কাজ করে এমন একটি বেসরকারি সংস্থা বলছে, বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকার পরিবারগুলো তাদের সন্তানদেরকে পাচারের কবল থেকে বাঁচাতে অনেকেই বাল্যবিবাহের পথ বেছে নিচ্ছেন। 'জাস্টিস এন্ড কেয়ার' নামের সংস্থাটি বলছে, শিশু-কিশোরীরা পাচার হতে পারে এই আশঙ্কা করলেও তারা পুলিশ অথবা সীমান্তরক্ষীদের না জানিয়ে ভয়ে চুপ করে থাকেন তারা।

পশ্চিমঙ্গের সীমান্ত এলাকার আটটি গ্রামে সংস্থাটির চালানো এক সমীক্ষায় এসব তথ্য উঠে এসেছে। মঙ্গলবার এ সমীক্ষাটি প্রকাশ করা হয়। ভারত-বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী আটটি গ্রামের প্রায় তিনশ কিশোরী এবং প্রায় দেড়শ মায়ের সঙ্গে কথা বলে সমীক্ষকরা জানাচ্ছেন, মূলত প্রলোভন দেখিয়ে ভারতের সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলি থেকে, এবং বাংলাদেশ থেকে ভারতে, শিশু-কিশোরী পাচার হচ্ছে।

'জাস্টিস এন্ড কেয়ার' সংস্থাটির গবেষণা পরিচালক সায়ন্তনী দত্ত বলছিলেন, "আমাদের সমীক্ষার একটা উদ্দেশ্য ছিল এটা জানার যে সীমান্ত অঞ্চলের মানুষ পাচারের ব্যাপারে কতটা জানেন। আমরা দেখেছি তাঁরা সবকিছুই জানেন। কিন্তু তা স্বত্ত্বেও চুপ করে থাকতে বাধ্য হন। পুলিশ বা সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে পাচারের ব্যাপারে জানাতে চান না ভয়ে। পাচারকারী বা তাদের দালালরা ওই এলাকাতেই ঘোরে আর তারা ভীষণ ক্ষমতাবান। তাদের যদি শাস্তি না হয়, তখন যিনি খবর দিয়েছেন, তাকেও বিপদের মুখে পড়তে হবে। এই আশঙ্কাতেই চুপ করে থাকেন সবাই।"

এছাড়াও সমীক্ষায় দেখা গেছে যে সীমান্ত অঞ্চলটি মেয়েদের কাছে, বিশেষত কিশোরীদের কাছে আতঙ্কের কারণ হয়ে উঠেছে। কারণ প্রলোভন দেখিয়ে পাচার করা ছাড়াও অপহরণ করে বা মাদক খাইয়েও মেয়েদের নিয়ে যাচ্ছে পাচারকারীরা। অনেক মেয়েই সমীক্ষকদের জানিয়েছে যে তারা স্কুলে বা প্রাইভেট টিউশনি পড়তে যেতেও ভয় পায়।

"সমীক্ষায় দেখা গেছে যে অনেক বাবা-মা তাঁদের মেয়েদের কম বয়সে বিয়ে দিয়ে দিচ্ছেন যাতে তারা বিপদে না পড়ে, অর্থাৎ পাচারকারীদের খপ্পরে না পড়ে," বলছিলেন মিজ. দত্ত।

আবার বাংলাদেশ থেকে যাদের পাচার করে ভারতে নিয়ে আসা হয়েছে, তাদের অনেকের সঙ্গে কথা বলে সমীক্ষকরা দেখেছেন যে পাচার হবার বিষয়টি তারা বুঝতেই পারেনি। কিশোরীরা অনুমান করতে পারেনি যে তাদের অন্য দেশে আনা হয়েছে।

সায়ন্তনী দত্তর কথায়, "তারা হয়তো ভেবেছে বাংলাদেশেরই কোনও জায়গায় কাজের জন্য বা বিয়ের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। রাতের বেলা যে তাদের আন্তর্জাতিক সীমান্ত পার করিয়ে দেওয়া হয়েছে, এটা পরের দিন সকালে তারা টের পেয়েছে। কিন্তু এদেশে কার কাছে সাহায্য চাইবে, সেটা তারা জানে না।"

সমীক্ষক দল ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিণী বা বিএসএফের কাছে সুপারিশ করেছে যে সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে আরও সংবেদনশীল হতে হবে শিশু পাচারের বিষয়ে। যেভাবে সীমান্ত এতদিন পাহারা দিয়ে এসেছে, সে পদ্ধতি বদল করতে হবে। সীমান্ত চৌকিগুলিকে পাচারের শিকার হওয়া শিশু-কিশোরীদের কাছে আরও মিত্রভাবাপন্ন করে তুলতে হবে।বর্ডার গার্ডস বাংলাদেশের সঙ্গেও যৌথভাবে পাচার রোধে কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে হবে।

বিএসএফ'র দক্ষিণ বঙ্গ ফ্রন্টিয়ারের ইন্সপেক্টর জেনারেল পি এস আর আঞ্জানিয়েলু বলছিলেন, "কারা পাচারের শিকার হয়ে আসছে, আর কারা অনুপ্রবেশ করছে - এই পার্থক্য করাটা বিএসএফ সদস্যদের কাছে খুবই কঠিন। পাচারের বিষয়ে কিছুটা জানা থাকলেও অনেক সময় আমাদের ভুল হচ্ছে, কারণ আমাদের ঠিকমতো প্রশিক্ষণ নেই এ বিষয়ে। সবেমাত্র এই বিষয়টা জানতে বুঝতে শুরু করেছি আমরা।"

সীমান্তরক্ষীদের প্রশিক্ষণও দেওয়া হচ্ছে যাতে পাচারের শিকার হওয়া ব্যক্তিদের ব্যাপারে অনেক বেশী সংবেদনশীল করানো যায় বাহিনীকে। প্রশিক্ষনের অংশ হিসাবে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর সঙ্গে সীমান্ত প্রহরীদের নিয়মিত দেখা-সাক্ষাত এবং মত বিনিময় করানো হচ্ছে সীমান্তে। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জাস্টিস এন্ড কেয়ারকে দিয়ে এই সমীক্ষাটি বিএসএফই করিয়েছে।

সীমান্ত অঞ্চলের মানুষদের একটা বড় অংশের মধ্যে বিএসএফের প্রতি যে একটা বিরূপ মনোভাব রয়েছে, শিশুপাচার রোধ নিয়ে কাজ করলে সেই মনোভাবও কাটিয়ে ওঠা যাবে বলে মনে করছে বিএসএফ। বাংলাদেশ সীমান্তের মতো একটা বন্ধুত্বপূর্ণ সীমান্তের গ্রামবাসীদের বিএসএফের প্রতি বিরূপ মনোভাব কাটিয়ে উঠার উপায় নিয়ে গবেষণা করতে দিল্লিতে একটি গবেষনা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। বিবিসি বাংলা



এসব আমাদের বিবেককেও স্পর্শ করে, একেবারে নীরব থাকতে পারি না: প্রধান বিচারপতি ২০৯০ সালের আগে এমন সূর্যগ্রহণ আর হবে না লভ্যাংশ পাঠিয়েছে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক রাজ্জাকের মৃত্যুতে যা বললেন তার প্রথম নায়িকা সুচন্দা সাভারে নৌকায় বর্জ্রপাত: নিহত ২, নিখোঁজ ১০ রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত প্রেমিকের সাথে বের হলেই দিতে হয় সতীত্বের পরীক্ষা! অতিরিক্ত সচিব পদে রদবদল নরসিংদীতে কিশোরীকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা বগুড়ায় বন্যার্তদের মাঝে বিএনপির ত্রান বিতরণ ২৭ আগস্ট থেকে নতুন টাকা বিনিময় শুরু মঙ্গলবার দিনটি আপনার কেমন যাবে? ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ; লম্পট পিতা গ্রেফতার নায়করাজের মৃত্যুতে খালেদা জিয়ার শোক প্রকাশ নায়করাজ রাজ্জাকের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ নিয়মিত পিল খাওয়ার উপকারিতা গবেষণার ফলাফল: যে কারণে পরকীয়ায় জড়ান নারীরা! ‘প্রেমিকা’র বিয়ে, মা-বাবার বিচ্ছেদ অতঃপর কিশোরের আত্মহত্যা! তালতলীতে ভয়াল ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে সভা একদিন সরকারকে চরম মূল্য দিতে হবে: মওদুদ মক্কায় হোটেলে আগুন, সরিয়ে নেয়া হয়েছে ৬০০ হজযাত্রী সিরাজদিখান উপজেলা প্রেস ক্লাবে শান্ত আহবায়ক সুলতানা সদস্য সচিব খাগড়াছড়িতে ২১ আগস্ট হামলার ঘটনায় স্মরণসভা ও মিলাদ মাহফিল গাইবান্ধায় ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রান বিতরণ সুজানগরে দুই স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ, পাঁচজন গ্রেপ্তার ইবি প্রেস ক্লাবের নেতৃত্বে ইকবাল ও আসিফ উখিয়ায় অবৈধ হুন্ডি ব্যবসা অপ্রতিরোধ্য তিন যোগেই ঘাড়ের ব্যাথা থেকে মিলবে মুক্তি নায়ক রাজ রাজ্জাক আর নেই ছবিটিতে এমন কিছু আছে যা খুঁজে পাওয়া সম্ভব নয়! নির্বাচন নিয়ে মাঠ জরিপে বিএনপি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মঙ্গল-বুধবারের ডিগ্রি পরীক্ষা স্থগিত ২৮ শিশুর মৃত্যু: স্বাস্থ্য সচিবকে হাইকোর্টে তলব মাদ্রাসার পাঠ্যবইয়ে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের ট্রেন যোগাযোগ চালু ব্লকে ৩৫ কোটি টাকার লেনদেন আত্রাইয়ে বন্যার্তদের পাশে ব্র্যাক পল্লী সমাজ খাগড়াছড়িতে সেনাবাহিনী-ইউপিডিএফ গোলাগুলি: বিপুল সামরিক সরঞ্জাম উদ্ধার পাঁচবিবিতে বন্যার্তদের মাঝে খাবার বিতরণ আত্রাইয়ে বন্যার পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু নওগাঁয় বিএনপির উদ্যোগে বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরন পত্নীতলায় বন্যা দূর্গত ৮ হাজার পরিবারের মাঝে হুইপের ত্রান বিতরন গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের বিচারের দাবীতে বেরোবিতে মানববন্ধন নওগাঁয় চোর সন্ধেহে মারপিটে এক ব্যক্তি নিহত রাণীনগরে বন্যার্তদের মাঝে যুবলীগ রাণীনগরে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার নিহতদের স্মরণে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা অঝরে কাঁদলেন অন্তত জলিল, জানালেন দ্বীনের পথে আসার নেপথ্যের কথা প্রধান বিচারপতিকে চাপ দিয়ে ইচ্ছাপূরণের চেষ্টা করা হচ্ছে : রিজভী গোপালগঞ্জের এক প্রতিবন্ধীসহ দুই জনের মৃতদেহ উদ্ধার