ঢাকা, মঙ্গলবার ২২শে আগস্ট ২০১৭ - 

তানোরে শিশুরাই কলেজের ছাত্র!

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 বৃহঃস্পতিবার ১৮ই মে ২০১৭

আব্দুস সবুর, তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি : জালিয়াতি করে প্রতিষ্ঠা করা হয় কলেজ। ভবন থাকলেও হয়না ক্লাস। অন্যের জমি জালিয়াতি করে প্রতিষ্ঠা করা হয় রাজশাহীর মাদারীপুর আইডিয়াল কলেজ। কলেজের খাতা কলমে শিক্ষার্থীর সংখ্যা দেখানো হলেও প্রতিষ্ঠার পর থেকে ১৬ বছরে কোন ধরনের হয়না ক্লাস। নিজের কলেজে শিক্ষার্থী ভর্তি করিয়ে অন্য কলেজে চুক্তিতে দেয়া হয় শিক্ষার্থী।

এমন অলোকিক প্রতিষ্ঠান থাকতে পারে এ ডিজিটাল যুগে ভাবাই কল্পনাতীত। আবার সামনে না কি এমপিও হবে বলে আদায় করা হচ্ছে শিক্ষক কর্মচারীদের কাছ থেকে কাড়িকাড়ি টাকা। কাগজে কলমে ও ইন্টারনেটে সব কিছু রাখা হয়েছে ঠিকঠাক। ক্লাস না হলেও ওই কলেজ থেকে আবার হয় পরীক্ষা। ওই কলেজের শিক্ষার্থীদের চুক্তি ভিত্তিক তালন্দ ললিত মোহন কলেজে ক্লাস করার সুযোগ করে দেয়া হয়। 

সেখানে ক্লাস অনিয়মিত ভাবে করে পরীক্ষা দিতে সুযোগ করে দেয়া হয় শিক্ষার্থীদের। গত এইচএসসি পরীক্ষায় ১৬ জন শিক্ষার্থী ওই আইডিয়াল কলেজ থেকে অংশ নিয়েছিলেন বলে জানায় কলেজ কর্তৃপক্ষ। অধ্যক্ষ ইসরাফিলের এমন জালিয়াতিতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে ওই এলাকাবাসী।

এজন্যে বাধ্য হয়ে জালিয়াতি করে কলেজ প্রতিষ্ঠা ও নিয়োগ দেবার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেবার বিরুদ্ধে মাদারীপুর গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হক মৃধার পুত্র মুকলেস মৃধা চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহের দিকে দুর্নীতি দমন কমিশনে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন। গত সোমবার কলেজে গিয়ে দেখা যায় কিছু শিশু শিক্ষার্থী ঘোরা ফেরা করছেন। কলেজের ছবি তুলতেই শিশুরা দোড়াদোড়ি শুরু করে। 

কলেজের কয়েকটি কক্ষে নেয়া হয় শিশুদের ক্লাস। কলেজের ভিতরে যেতে শ্রেণি কক্ষে সাটানো আছে কেজি স্কুলের সাইনবোর্ড। কয়েক বছর ধরে চলছে এমন অবস্থা। অধ্যক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে চৌবাড়িয়া মালশিরা স্কুলের শিক্ষক আসাদুল মাদারীপুর আইডিয়াল কলেজে খুলেছেন কেজি স্কুল। তিনিও অধিক টাকার লোভে স্কুলে নিয়মিত ক্লাস না নিয়ে কেজি স্কুলেই বেশি সময় দেন বলে একাধিক সূত্র থেকে নিশ্চিত হওয়া গেছে। 

শ্রেণি কক্ষের ভেতরে কেজি স্কুলের সাইন বোর্ডের ছবি তুলতেই নামিয়ে ফেলা হয় সাইন বোর্ডটি। সেখানে ছিলেন কলেজের প্রভাষক আফজাল হোসেন। তিনি বলেন, যেহেতু কলেজে ক্লাস হয় না এজন্যে এলাকাবাসীর অনুমতিতে কেজি স্কুলটি চলছে। জমি জমার কোন সমস্যা নেয়। 

আশা করছি অল্প দিনের মধ্যে এমপিও হবে কলেজটি। আপনারা বসেন অধ্যক্ষকে ডাকা হচ্ছে। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে এ কলেজে বেগার দিয়ে যাচ্ছি। আপনাদের শিক্ষার্থী কোথায়, শিক্ষক কোথায় জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, শিক্ষকেরা শিক্ষার্থীদের খোঁজে গ্রামে গ্রামে গেছেন। ক্লাস হয় না কেন জানতে চাইলে তিনি জানান, কতদিন বিনা পয়সায় চলা যায় এসব কথা বলতেই হাজির হয় অধ্যক্ষ ইসরাফিল। 

তিনি বলেন, কলেজ সম্পর্কে রির্পোট করার দরকার নেয়। অল্প দিনের মধ্যে এমপিও হবে তখন জাকজমক পূর্ণ অনুষ্ঠান করে ডাকা হবে আপনাদের। আপনার কলেজের জায়গা নাকি জালিয়াতি জানতে চাইলে এড়িয়ে গিয়ে বলেন, জায়গার সমস্যা আছে অতি দ্রুত সমাধান করা হবে। কলেজে শিশু শিক্ষার্থী কিভাবে আসে। জানতে চাইলে তিনি জানান, আমরাই এলাকার শিশুদের সুবিধার্থে কেজি স্কুলের ক্লাস নিতে বলেছি। 

যেহেতু কলেজটি ফাঁকা পড়ে থাকে। এজন্যেই নেয় ক্লাস। অভিযোগ সূত্রে জানা যায় মাদারীপুর আইডিয়াল কলেজটি প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৯৯৯ সালের দিকে। একটি কলেজ প্রতিষ্ঠা করতে জমির প্রয়োজন পড়ে। প্রথমে জাল দলিল তৈরি করে করা হয় কলেজ। ১৯৯৯ সালে এমএ হামিদ সাব-রেজিষ্ট্রার স্বাক্ষরিত জাল দলিল তৈরি করেন অধ্যক্ষ। অথচ এ পর্যন্ত যত সাব-রেজিষ্ট্রার এসেছেন বা বদলি হয়েছেন তাদের মধ্যে এমএ হামিদ নামে কোন সাব-রেজিষ্ট্রার তানোরে আসেননি। এমনকি জাল দলিলের মুহুরী হিসেবে লেখকের নাম দেখানো হয় কলিম উদ্দীন। 

অথচ তিনি বিগত ২৫ বছর আগে মৃত্যুবরণ করেন। জাল দলিলের তারিখ দেখানো আছে ০৮/০২/১৯৯৯, দলিল নং-৫০২৪ দানপত্র। কিন্তু এ দলিলটি উপজেলার নবনবী মৌজার জমি রেজিষ্ট্রী হয়। এই নবনবী মৌজার জমিটি জালিয়াতি করে কলেজের নামে খারিজ করেন। 

জালিয়াতির মাধ্যমে কলেজের নামে ৫২ শতাংশ জমি করে নেয়। কিন্তু ওই ৫২ শতাংশ জমির মধ্যে ৩১ শতাংশ জমি অধ্যক্ষের ভাই এ্যাড: আলিম চৌধুরীর নামে। তিনি নিজ নামে জমিটি খারিজ খাজনা করেছেন। এভাবে চলে আসছে কলেজটি এ অবস্থায় এমপিও হবে এমন কথা বলে পূণরায় শিক্ষকদের কাছ থেকে কাড়িকাড়ি টাকা আদায় করছেন অধ্যক্ষ। শিক্ষার্থী না থাকলেও শিক্ষক কর্মচারী রয়েছেন ৩৩ জন। 

এলাকাবাসীর দাবী সরেজমিনে কলেজটি নিয়ে কর্তৃপক্ষ তদন্ত করলেই বেরিয়ে আসবে আরো ভয়াবহ জালিয়াতি। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শওকাত আলীর ব্যক্তিগত মোবাইলে ফোন দেয়া হলে তিনি রিসিভ করেন নি।



পাবনায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৫ এসব আমাদের বিবেককেও স্পর্শ করে, একেবারে নীরব থাকতে পারি না: প্রধান বিচারপতি ২০৯০ সালের আগে এমন সূর্যগ্রহণ আর হবে না লভ্যাংশ পাঠিয়েছে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক রাজ্জাকের মৃত্যুতে যা বললেন তার প্রথম নায়িকা সুচন্দা সাভারে নৌকায় বর্জ্রপাত: নিহত ২, নিখোঁজ ১০ রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত প্রেমিকের সাথে বের হলেই দিতে হয় সতীত্বের পরীক্ষা! অতিরিক্ত সচিব পদে রদবদল নরসিংদীতে কিশোরীকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা বগুড়ায় বন্যার্তদের মাঝে বিএনপির ত্রান বিতরণ ২৭ আগস্ট থেকে নতুন টাকা বিনিময় শুরু মঙ্গলবার দিনটি আপনার কেমন যাবে? ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ; লম্পট পিতা গ্রেফতার নায়করাজের মৃত্যুতে খালেদা জিয়ার শোক প্রকাশ নায়করাজ রাজ্জাকের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ নিয়মিত পিল খাওয়ার উপকারিতা গবেষণার ফলাফল: যে কারণে পরকীয়ায় জড়ান নারীরা! ‘প্রেমিকা’র বিয়ে, মা-বাবার বিচ্ছেদ অতঃপর কিশোরের আত্মহত্যা! তালতলীতে ভয়াল ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে সভা একদিন সরকারকে চরম মূল্য দিতে হবে: মওদুদ মক্কায় হোটেলে আগুন, সরিয়ে নেয়া হয়েছে ৬০০ হজযাত্রী সিরাজদিখান উপজেলা প্রেস ক্লাবে শান্ত আহবায়ক সুলতানা সদস্য সচিব খাগড়াছড়িতে ২১ আগস্ট হামলার ঘটনায় স্মরণসভা ও মিলাদ মাহফিল গাইবান্ধায় ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রান বিতরণ সুজানগরে দুই স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ, পাঁচজন গ্রেপ্তার ইবি প্রেস ক্লাবের নেতৃত্বে ইকবাল ও আসিফ উখিয়ায় অবৈধ হুন্ডি ব্যবসা অপ্রতিরোধ্য তিন যোগেই ঘাড়ের ব্যাথা থেকে মিলবে মুক্তি নায়ক রাজ রাজ্জাক আর নেই ছবিটিতে এমন কিছু আছে যা খুঁজে পাওয়া সম্ভব নয়! নির্বাচন নিয়ে মাঠ জরিপে বিএনপি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মঙ্গল-বুধবারের ডিগ্রি পরীক্ষা স্থগিত ২৮ শিশুর মৃত্যু: স্বাস্থ্য সচিবকে হাইকোর্টে তলব মাদ্রাসার পাঠ্যবইয়ে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের ট্রেন যোগাযোগ চালু ব্লকে ৩৫ কোটি টাকার লেনদেন আত্রাইয়ে বন্যার্তদের পাশে ব্র্যাক পল্লী সমাজ খাগড়াছড়িতে সেনাবাহিনী-ইউপিডিএফ গোলাগুলি: বিপুল সামরিক সরঞ্জাম উদ্ধার পাঁচবিবিতে বন্যার্তদের মাঝে খাবার বিতরণ আত্রাইয়ে বন্যার পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু নওগাঁয় বিএনপির উদ্যোগে বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরন পত্নীতলায় বন্যা দূর্গত ৮ হাজার পরিবারের মাঝে হুইপের ত্রান বিতরন গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের বিচারের দাবীতে বেরোবিতে মানববন্ধন নওগাঁয় চোর সন্ধেহে মারপিটে এক ব্যক্তি নিহত রাণীনগরে বন্যার্তদের মাঝে যুবলীগ রাণীনগরে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার নিহতদের স্মরণে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা অঝরে কাঁদলেন অন্তত জলিল, জানালেন দ্বীনের পথে আসার নেপথ্যের কথা প্রধান বিচারপতিকে চাপ দিয়ে ইচ্ছাপূরণের চেষ্টা করা হচ্ছে : রিজভী