ঢাকা, বৃহঃস্পতিবার ২৯শে জুন ২০১৭ - 

রাসুল (সাঃ) কখন ইতিকাফ কর‌তেন

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 রবিবার ১৮ই জুন ২০১৭

ইসলাম ডেস্ক : আরবি ইতিকাফ শব্দের আভিধানিক অর্থ অবস্থান করা, স্থির থাকা, কোন স্থানে আটকে পড়া বা আবদ্ধ হয়ে থাকা। ইসলামী শরিয়তের পরিভাষায় রমজান মাসের শেষ দশ দিন অথবা অন্য কোনো দিন জাগতিক কাজকর্ম ও পরিবার-পরিজন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ইবাদতের নিয়তে মসজিদে বা ঘরে নামাজের স্থানে অবস্থান করা ও স্থির থাকাকে ইতিকাফ বলে। মাহে রমজানের শেষ দশ দিন মসজিদে অবস্থান করা বা ইতিকাফ করা সুন্নতে মুয়াক্কাদায়ে কিফায়া।


ইতিকাফ করার মূল উদ্দেশ্য হলো— মসজিদে বসে আল্লাহর আনুগত্য করা এবং সৃষ্টিকর্তার অনুগ্রহ লাভ, সওয়াব অর্জন ও লাইলাতুল কদর লাভ করার আশা করা। আর এজন্য প্রত্যেক ইতিকাফকারীর আল্লাহর জিকির, পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, নামাজ-রোজা, জিকির-আজকার, দোয়া-দরুদ, মোরাকাবা-মোশাহেদা ও অন্যান্য ইবাদতে ব্যস্ত থাকা এবং পার্থিব বিষয়ে কথাবার্তা ও আলাপ-আলোচনা থেকে দূরে থাকা আবশ্যক।


রাসূলুল্লাহ (স) নিয়মিতভাবে প্রতি বছর রমজান মাসের শেষ দশ দিন মসজিদে ইতিকাফ করতেন এবং সাহাবায়ে কিরামও ইতিকাফ করতেন। নবী করিম (স) ইতিকাফের এত বেশি গুরুত্ব দিতেন যে, কখনো তা ছুটে গেলে ঈদের মাসে আদায় করতেন। উম্মুল মুমিনীন হজরত আয়েশা (রা)-এর হাদীস সূত্রে জানা যায়, ‘রাসূলুল্লাহ (স) প্রতি রমজানের শেষ দশ দিন (মসজিদে) ইতিকাফ করতেন। এ আমল তাঁর ইন্তেকাল পর্যন্ত কায়েম ছিল। নবী করিম (স)-এর ওফাতের পর তাঁর বিবিগণও এ নিয়ম পালন করেন।’ (বুখারী ও মুসলিম)


ইতিকাফের বিধিসম্মত সময় মাহে রমজানের ২০ তারিখ সূর্য অস্ত যাওয়ার কিছু আগে থেকে শুরু হয় এবং ঈদের চাঁদ দেখার সঙ্গে সঙ্গেই তা শেষ হয়ে যায়। ইতিকাফকারী পুরুষ রমজান মাসের ২০ তারিখ আছরের নামাজের পর সূর্যাস্তের আগে মসজিদে পৌঁছবেন এবং মসজিদের কোণে একটি ঘরের মতো পর্দা দিয়ে ঘেরাও করে অবস্থান নেবেন। ঘেরাওকৃত কক্ষে পর্দা এমনভাবে স্থাপন করবেন, যেন প্রয়োজনে জামাতের সময় তা খুলে মুসল্লিদের জন্য নামাজের ব্যবস্থা করা যায়।


এ স্থানে পানাহার ও শয়ন করবেন এবং নিষ্প্রয়োজনে এখান থেকে বের হবেন না। তবে প্রাকৃতিক প্রয়োজনে অথবা ফরজ গোসল প্রভৃতি কাজে অথবা শরিয়তের প্রয়োজনে যেমন জুমার নামাজ প্রভৃতির জন্য বের হওয়া জায়েজ। কিন্তু প্রয়োজন পূরণের সঙ্গে সঙ্গেই ইতিকাফের স্থানে ফিরে যেতে হবে। ঈদের চাঁদ দেখা গেলে মসজিদ থেকে বেরিয়ে আসবেন।


পার্থিব কর্মকাণ্ড থেকে নিজেকে সম্পূর্ণ মুক্ত করে মহান আল্লাহর ইবাদতে আত্মনিয়োগের জন্য পুরুষদের মসজিদে এবং নারীদের জন্য গৃহে অবস্থান করাই ইতিকাফ। স্ত্রীলোকের মসজিদে ইতিকাফ করা মাকরূহ। ঘরের নির্দিষ্ট স্থানে, যেখানে তিনি নামাজ আদায় করেন সেখানেই ইতিকাফ করবেন।


বাড়ির নির্দিষ্ট স্থান না থাকলে যেকোনো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন স্থানে ইতিকাফ করবেন এবং ঈদের চাঁদ উদয় না হওয়া পর্যন্ত ইতিকাফের স্থান ত্যাগ করবেন না। প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়া ও ফরজ গোসল ব্যতীত অন্য কোনো কারণে মসজিদের বাইরে গেলে ইতিকাফ ভঙ্গ হয়ে যায়। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে যে কেউ ইতিকাফ করলে সুন্নতে কিফায়া আদায় হয়ে যাবে। কিন্তু গ্রামের বা পাড়া-মহল্লার কেউ ইতিকাফ না করলে সবাই গুনাহগার হবে।


হাদীস শরিফে বর্ণিত আছে, রাসূলুল্লাহ (স) ইরশাদ করেছেন, ‘ইতিকাফকারী রোগী দেখতে যাবে না, জানাজায় উপস্থিত হবে না, স্ত্রী স্পর্শ করবে না। বিশেষ জরুরি কাজ ব্যতীত বাইরে যাবে না।’ (বুখারী, মুসলিম ও আবু দাউদ)


নবী করিম (স) ইরশাদ করেছেন, ‘যে ব্যক্তি রমজানের শেষ দশ দিন ইতিকাফ করবে, তার জন্য দুই হজ ও দুই ওমরার সওয়াব রয়েছে।’ (বায়হাকী)


ইতিকাফের ফজিলত সম্পর্কে অন্য হাদীসে রাসূলুল্লাহ (স) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য একদিনের ইতিকাফ করল, আল্লাহ পাক তার ও দোজখের মধ্যখানে এমন তিনটি পরিখা তৈরি করে দেবেন, যার একটি থেকে অপরটির দূরত্ব হবে পূর্ব ও পশ্চিমেরও বেশি।’ (তিরমিযি ও বায়হাকী)



ইসির সংলাপ শুরু ৩০ জুলাই থেকে মোজায় দুর্গন্ধ? জানুন কিছু টিপস অটোরিকশা-প্রাইভেটকার সংঘর্ষে মা-ছেলেসহ নিহত ৩ বৃহস্পতিবার দিনটি আপনার কেমন যাবে ? শ্যাম্পু ব্যবহারে আপনার যৌনজীবনে বিপদ আসছে... এক লাখ ১ থেকে পাঁচ লাখে আবগারি শুল্ক ১৫০ নবম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবেঁধে গণধর্ষণ আটক ২ ঈদের দিন নিঝুম দ্বীপে বেড়াতে নিয়ে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ! পাঁচ তলা থেকে পড়েও যেভাবে বেঁচে গেলো শিশুটি শাহজাদপুরে বাসচাপায় ৩ জন নিহত খুশকি দূর করার কিছু সহজ উপায়! সৌন্দর্যপিপাসুদের ভিড়ে মুখরিত তাহিরপুরের দর্শনীয় স্থানগুলো তুলসী পাতার অসাধারণ কিছু উপকারিতা ঘুমের মধ্যে কেঁদে ওঠেন যে কারণে! কেমন কাটলো অপু বিশ্বাসের ঈদ? অটোরিকশা বিদ্যুতায়িত: দুই ভাতিজাসহ চাচা নিহত ঈদ আমেজের পর সরগরম হয়ে উঠতে পারে রাজনীতির মাঠ নৌকা বিসর্জনের বাজনা বাজছে : রিজভী শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচনে যাবে বিএনপি: দাবি তোফায়েলের আ.লীগের সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য গণতন্ত্রের জন্য হুমকিস্বরুপ মৃত্যুর ২৮ বছর পর কবর থেকে তোলা হচ্ছে সালভাদরের দেহ গাড়ি দুর্ঘটনা: বেঁচে ফিরলেন রাজ্জাক খাগড়াছড়িতে বাস উল্টে মা-মেয়েসহ নিহত ৩ আবারও বড় ধরনের সাইবার হামলা নাফ নদীতে নৌকাডুবি, নিখোঁজ ৩ শিশু বুধবার দিনটি আপনার কেমন যাবে? কুষ্টিয়ায় বাস-পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ২ বরিশালে সাংবাদকি লিটন বাশারের ইন্তকোল গুগলকে ২৭০ কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা দেশ এখন ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে: দুদু এই প্রথম র‍্যাংকিংয়ের সেরা দশে সাব্বির টুইটে মোদিকে ইভানকার ধন্যবাদ তাহলে ২ সন্তানের মাকে বিয়ে করেছেন ধোনি? ছবির প্রলোভনে লালসার শিকার যেসব নায়িকারা ১৫ মিনিটেই ত্বক ফর্সা করার উপায়! (ভিডিও) কে হবেন ভারতের নতুন কোচ? একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন-৫: ময়মনসিংহের ২৪ আসনে আ'লীগের ১৩৬ প্রার্থী প্রধানমন্ত্রীকে পদত্যাগের প্রস্তুতি নিতে রিজভীর আহ্বান গায়িকা-নায়িকাদের প্রেম-বিয়ে ও ভাঙন 'নির্বাচনকালে শেখ হাসিনাই সরকার প্রধান থাকবেন' ক্যান্সারের কোষ নষ্ট করবে পেঁয়াজ বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করতে মোদিকে ট্রাম্পের আহ্বান সিরাজগঞ্জে ঈদগাহে সংঘর্ষে আহত ২ জনের মৃত্যু কেন অভিনয় ছেড়েছিলেন শাবানা? জানুন নেপথ্যের কাহিনী দিল্লিতে চায়ের দোকানে বিস্ফোরণ, নিহত ৫ ঈদের রাতে নগরীতে অস্ত্রসহ ৫ ছিনতাইকারী আটক ত্রিশালে পিকআপ চাপায় দাদা-নাতি নিহত উৎসবে খাবারের পর স্লিম থাকার ৭ টি টিপস নিখোঁজ বিজিবি জওয়ানকে উদ্ধারে জোর তৎপরতা ১১ মাসে বিদেশি নিট বিনিয়োগ বেড়েছে ২৮৫.৪২%