ঢাকা, বুধবার ১৬ই আগস্ট ২০১৭ - 

অস্তিত্ব সংকটে রাবি ছাত্রদল

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 শুক্রবার ১১ই আগস্ট ২০১৭

রাজশাহী: আছে সবই। আছে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক। এমনকি হলের আহ্বায়ক কমিটিও আছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ছাত্রদলের। কিন্তু এসব নেতাদের কেউ ক্যাম্পাসে নেই। কেন্দ্র ঘোষিত কোন কর্মসূচিও পালন হয় না ক্যাম্পাসে। হয় না মিটিং-মিছিল ও সমাবেশ। সব মিলিয়ে প্রায় অস্তিত্বহীন বিএনপির ছাত্র সংগঠন রাবি ছাত্রদল।


আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে চাঙা হয়ে উঠছে রাজনৈতিক দল ও এর সহযোগী সংগঠনগুলো। জাতীয় নির্বাচন এবং রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) নির্বাচনকে টার্গেট করে ছাত্রলীগ ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করলেও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের কোন তৎপরতা নেই। ছাত্রদলের এ নিষ্ক্রিয়তা অনেককে ভাবিয়ে তুলেছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে আগামী নির্বাচনে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল কতটা ভূমিকা রাখতে পারবে তা নিয়ে নেতাকর্মীরা সংশয় প্রকাশ করেছেন।


জানা গেছে, সংগঠনকে গতিশীল করতে দীর্ঘ এক যুগ পর ২০১৪ সালের ২৪ জুলাই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের ছয় সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করে সংগঠনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ। দুই বছর মেয়াদী ওই কমিটিকে এক মাসের মধ্যে ৮১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়।


কিন্তু ঘোষিত ছয় সদস্যের কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ারও দুই মাস পরে ৮১ সদস্যের স্থলে ১৪৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করে। তবে কমিটি ঘোষণার দু’মাসের মধ্যেই হল ও অনুষদ কমিটির জন্য আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। কিন্তু তারপর আর কোন অগ্রগতি নেই।


কমিটি গঠনের পরপরই সভাপতি ও সম্পাদকের ছাত্রত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠে। ছাত্রদলের কয়েকজন নেতা জানান, কমিটির সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদের পড়াশুনা শেষ হয়েছে ২০১১ সালে। আর সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলামের ছাত্রত্ব বাতিল হয়েছে আগেই। তবে পরে তিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি নিয়ে সেসময় সান্ধ্যকালীন এমবিএ করছিলেন।


ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের উচ্চ পর্যায়ের নেতাদের অনুপস্থিতির কারণে দলের নবীন-প্রবীণ নেতাকর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভ আর হতাশা কাজ করছে বলে জানিয়েছেন ছাত্রদলের কয়েকজন নেতা। বাধ্য হয়েই তারা এখন ছাত্রলীগ, ছাত্রশিবিরসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনগুলোতে নাম লেখাচ্ছেন বলে জানান তারা।


ছাত্রদলের কয়েকজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘ছাত্রদলের নেতৃত্ব সংকট ও ক্যাম্পাসে অনুপস্থিতির কারণে সক্রিয় কর্মীরা বিশেষ সুবিধা পেতে ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরসহ বিভিন্ন দলে আশ্রয় নিচ্ছেন। তারা ছাত্রলীগের নাম ভাঙিয়ে বিভিন্ন অপকর্মে জড়াচ্ছেন বলেও অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।


দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালে সরকার বিরোধী আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা রাখতে এবং ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করতে নতুন কমিটি দেয়া হয়েছিল। কেন্দ্রীয় ও রাজশাহী মহানগর বিএনপি ও ছাত্রদল ভেবেছিল, নতুন কমিটি ঘোষিত হলে রাবি ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা সক্রিয় হবেন। কিন্তু তারা আগের মতোই নিস্ক্রিয় আছেন। ক্রমেই হয়ে পড়ছেন অস্তিত্বহীন।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্রদলের বেশ কয়েকজন কর্মী বলেন, দীর্ঘদিন পর নতুন কমিটি পাওয়ায় আমাদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ কাজ করছিল। কিন্তু কমিটির সভাপতি-সম্পাদকের ব্যর্থতায় কোন কর্মসূচি তো দূরে থাক অভ্যন্তরীণ কর্মকান্ডও স্থবির হয়ে পড়েছে। হল কমিটি দেওয়ার কথা থাকলেও নতুন কমিটির নেতাদের অবহেলায় তা হচ্ছে না বলে অভিযোগ তাদের।


ছাত্রদলের অস্তিত্ব সম্পর্কে ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান বলেন, আমাদের নেতাকর্মীরা নিয়মিতই ক্যাম্পাসে বসে। তবে বিভিন্ন সমস্যার কারণে সাংগঠনিকভাবে বসা  হয়ে উঠে না। সরকারবিরোধী প্রতিটি আন্দোলনেই আমরা ছিলাম। কিন্তু বর্তমান সময়ে ছাত্রলীগ নয় বরং পুলিশ আমাদের প্রতিপক্ষ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই একটু ভিন্ন পথ অবলম্বন করতে হচ্ছে আমাদের।


ছাত্রদল সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, ছাত্রদল অস্তিত্বহীন নয়। আমাদের কার্যক্রম ঠিকই চলছে। ক্যাম্পাসে বাধা থাকায় সাংগঠনিক কার্যক্রম ক্যাম্পাসের বাইরে করি। ক্যাম্পাসে আগের মতো ছাত্ররাজনীতির পরিবেশ নেই। নির্বাচন নিয়ে ‘এখনো কাজ শুরু করার সময় হয়নি’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন ঘিরেও আমাদের বিভিন্ন পরিকল্পনা আছে। সময় হলেই নির্বাচন নিয়ে কাজ শুরু করব।

ইসলামী ব্যাংক ও এক্সপ্রেস মানির স্পেশাল প্রমোশনাল প্রোগ্রাম উদ্বোধন বড়পুকুরিয়ায় ক্ষতিগ্রস্থদের বিক্ষোভ উখিয়ায় ২১৬০ পিস ইয়াবা সহ ২ পাচারকারী আটক ২০ হাজার ইয়াবা সহ আটক যুবলীগ নেতা আ’লীগ শান্তি সম্প্রীতি উন্নয়নে বিশ্বাস করে ৭ মাসে ওয়ালটনের ফ্রিজ বিক্রি বেড়েছে ৩০ শতাংশের বেশি 'সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখতেই সরকারের ধারাবাহিকতা দরকার' ওয়াইল্ড কার্ড পেলেন শারাপোভা সাপাহারে ৭টি বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে প্রায় ৩ হাজার পরিবার পানি বন্দি বন্যা দুর্গতদের জন্য সরকারের ত্রাণ তৎপরতা নেই: রিজভী ষোড়শ সংশোধনী রায়ের পক্ষে-বিপক্ষে আইনজীবীদের কর্মসূচি হ্যাথাওয়ের নগ্ন ছবি ফাঁস, সামাজিক মাধ্যমে ঝড় মেয়ে হত্যায় পরিবার থেকে মামলা করতে না দেওয়ায় বাবার আত্মহত্যা দরপতনের শীর্ষে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স উত্তরে কমছে, মধ্যাঞ্চলে বাড়ছে বন্যার পানি জয়ার জীবনে বিশেষ একজন আছেন! বিশ্বের সেরা বাসযোগ্য শহর কোনটি, জানেন কী? বাংলাদেশ, ভারত, নেপালে বন্যায় নিহত ২২১ সবাইকে বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান খালেদা জিয়ার মিরসরাইয়ে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ১ গোপালগঞ্জে আইনজীবীদের বিক্ষোভ মিছিল ভোলা জেলা দোকান কর্মচারী ইউনিয়নের সভা অনুষ্ঠিত ‘চালের দাম নিয়ে কোনরকম হা-হুতাশ নাই’ 'শাস্তিটা বেশিই হয়ে গেছে' ক্ষেপেছেন জিদান! একসময় মৌসুমী-শাবনূর-সালমানের ভিউকার্ড জমাতেন পূর্ণিমা! ডিএসই-সিএসইতে দরপতন ‘শুনেছি আপনি নির্বাচন করবেন’ অকালে বুড়িয়ে যাওয়া প্রতিরোধে খেতে হবে ২৫টি খাবার ট্রাক চাপায় দুই পথচারীর মৃত্যু ফিলিপাইনে মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত ৩২ সবার অংশগ্রহণে সুষ্ঠু নির্বাচন চায় গণমাধ্যম ফেসবুকে ছবি শেয়ার করে সমালোচনার মুখে পরীমনি ! ‘ভাত’ খেতে চাওয়ায় মাকে মেরে বের করে দিল ছেলে! আরও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা সূচক পতনে লেনদেন কিমের হুমকিতে গুয়ামে হঠাৎ আপৎকালীন সতর্কতা জারি ! সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের প্রিমিয়াম আয় বেড়েছে সম্প্রতি বাজারে আসা সেরা ১০ স্মার্টফোন স্ত্রীর ব্যাগে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে.... মেয়র আনিসুল হক ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত ম্যানইউয়ের হয়ে ফুটবল খেলবেন বোল্ট! নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় বাড়ল ফনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লভ্যাংশ ঘোষণা ‘রেহান কেন আমার আর হাবিবের মাঝে প্রবলেম করছে?’ ভারতে ব্লু হোয়েল গেম নিয়ে আতঙ্ক, বন্ধের নির্দেশ মোদি সরকারের আসছে গুগলের নতুন অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ 'ও' প্রশ্নটি করেই মনে মনে লজ্জা পেলাম নেপালে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯১ দর বাড়ার কারণ নেই ২ কোম্পানির ফের আসতে শুরু করে করেছে রোহিঙ্গারা