ঢাকা, বুধবার ২২শে নভেম্বর ২০১৭ - 

শিগগিরই মাঠে নামছে আওয়ামী লীগ

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 রবিবার ১০ই সেপ্টেম্বর ২০১৭

ঢাকা: আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দলীয় কোন্দল মিটিয়ে সংগঠন চাঙ্গা করতে শিগগিরই মাঠে নামছে আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বিভাগীয় সাংগঠনিক ও যুগ্ম সম্পাদকরা দলীয় কোন্দল থাকা জেলাগুলো সফর করবেন।

নির্বাচনের আগেই তারা মাঠপর্যায়ের সাংগঠনিক সমস্যা সমাধানের পরিকল্পনা নিয়েছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।


আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ এ ব্যাপারে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, দলে অভ্যন্তরীণ কোন্দল নেই, যা আছে সেটা মতভেদ বা দূরত্ব। আগামী নির্বাচনের আগে আমরা নেতা-কর্মীদের মতভেদ-দূরত্ব দূর করে সুদৃঢ় দলীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠা করতে চাই। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জেলায়-জেলায় আওয়ামী লীগ নানা দলে-উপদলে বিভক্ত। দলীয় কোন্দলপ্রবণ জেলাগুলোর মধ্যে আছে— চট্টগ্রাম মহানগর, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, কুমিল্লা উত্তর, দক্ষিণ ও মহানগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, নরসিংদী, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, শেরপুর, ফরিদপুর, শরীয়তপুর, খুলনা জেলা, নাটোর, নওগাঁ, বরিশাল মহানগর, ভোলা, পিরোজপুর, মৌলভীবাজার এবং সুনামগঞ্জ।

এ বছর ৩০ মার্চে অনুষ্ঠিত কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা দল বেঁধে মাসব্যাপী চেষ্টা করেও দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে পারেননি। দলীয় কোন্দলের কারণেই আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী পরাজিত হয়েছেন বলে দলের কেন্দ্রীয় নেতারা স্বীকার করেছেন। জাতীয় নির্বাচনের আগে কুমিল্লায় জটিলতা আরও বাড়তে পারে বলে নেতারা আশঙ্কা করছেন। সিলেটে দীর্ঘদিন ধরেই চলে আসছে নেতায়-নেতায় দ্বন্দ্ব। সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে কোন্দল রয়েছে। এসব দ্বন্দ্ব কোথাও স্বার্থের, কোথাও নেতৃত্বের আবার কোথাও আধিপত্য বিস্তারের।

আগামী নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় দলীয় কোন্দল নিয়ে বড় দুশ্চিন্তায় রয়েছেন আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতারা। অনেক এলাকায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা দল থেকে দূরে সরে গেছেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলীয় ঐক্যের বিষয়ে সম্প্রতি চট্টগ্রামে এক সমাবেশে নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ঘরে ঐক্য না থাকলে বাইরের ঐক্য কখনো সুদৃঢ় হবে না। জানা গেছে, দলীয় কোন্দল আছে এমন জেলাগুলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফর করতে পারেন। এ ছাড়া সাংগঠনিক সম্পাদকদের দলীয় কোন্দলের বিষয়ে কেন্দ্রে জানানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নেতারা জেলা-উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে সভা-সমাবেশ, কর্মিসভা এবং মতবিনিময় করে তৃণমূলের দ্বন্দ্ব নিরসন করবেন। নেতাদের মধ্যে ক্ষোভ বা মান-অভিমান থাকলে তা নিরসনের চেষ্টা করা হবে। পাশাপাশি ভোটারদের কাছে সরকারের বিভিন্ন সাফল্য তুলে ধরবেন নেতারা। এ ছাড়া সন্ত্রাস-জঙ্গিবিরোধী প্রচারণা চালানো হবে। অভিযোগ আছে, সরকার গঠনের পরই দলের অধিকাংশ মন্ত্রী-এমপি এমনকি সিনিয়র নেতারা ঢাকামুখী হয়ে পড়েছেন। এলাকায় তাদের যাতায়াত কম। সে কারণে মাঠের নেতা-কর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে জেলা-উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে সভা-সমাবেশ, কর্মিসভা এবং মতবিনিময় সভা করে তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের সুসংগঠিত করার কাজ চলছে। এটি আরও ব্যাপকভাবে করা হবে।

তিনি বলেন, নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ থাকলে তার অবসান করা হবে। পাশাপাশি ভোটারদের কাছে সরকারের বিভিন্ন সাফল্য তুলে ধরা হবে। আওয়ামী লীগের আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দলকে আরও শক্তিশালী এবং গতিশীল করতে তৃণমূলে কর্মিসভা এবং মতবিনিময় সভা করা হবে। ভোটারদের কাছে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরা হবে। কোনো সমস্যা থাকলে তা সমাধান করা হবে। বাংলাদেশ প্রতিদিন

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন


Advertisement
রোহিঙ্গা ফেরতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার চুক্তির সিদ্ধান্ত বাজারে এল ডেলের ল্যাপটপ অষ্টম প্রজন্মের ল্যাপটপ শাকিব অপছন্দ করে এমন কাজ করতে চাই না : অপু সবার জন্য বিদ্যুৎ: প্রতিবছর প্রয়োজন ১২-৪০ বিলিয়ন ডলার ব্রিটিশ রাজবধূর ভাইয়ের প্রেমে পড়েছেন প্রিয়াঙ্কা! এমনও দিন যায় তিন ঘণ্টার বেশি ঘুমাতে পারি না: প্রধানমন্ত্রী মুসলিম গণহত্যার দায়ে বসনিয়ার কসাইয়ের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সরকারের স্বাভাবিক পতন হবে বলে মনে হয় না: ফখরুল বিএনপি ক্ষমতায় এলে জঙ্গি উৎপাদন শুরু করবে: তথ্যমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নামানোর ক্ষমতা দ্বিতীয় কোনো দলের নেই: হানিফ ঠাকুরগাঁওয়ে এনসিটিএফ'র বার্ষিক কর্ম পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত বরিশালে চারশ’ কেজি জাটকা জব্দ ‘বিএনপি সশস্ত্র বাহিনীকে সম্মান করে না’ সবচেয়ে সুন্দরী নারী ক্রিকেটার তিনি! বরিশালে বখাটেদের হামলায় কলেজ ছাত্র খুন গোল পেয়ে ক্ষোভ ঝাড়লেন রোনালদো ভোলার ভেলুমিয়ায় আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত ‘ইসিকে আরও নিরপেক্ষ ও শক্তিশালী হতে হবে’ মহান আল্লাহ শেখ হাসিনাকে সৃষ্টি করেছেন মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য: কাদের ব্লক মার্কেটে ১৫ কোটি ২১ লাখ টাকার লেনদেন মাদক ব্যবসায়ীর হামলায় পুলিশের ২ এএসআই আহত: আটক ১ ইবির ‘এফ’ ইউনিটের ১০০ শিক্ষার্থীর ভর্তি বহাল ফেসবুকে ছবি ছড়িয়ে দেয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা: আটক ১ “গ্রীন তেঁতুলিয়া-ক্লিন তেঁতুলিয়া” লালমনিরহাটে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ১৫ লক্ষ্য টাকার ক্ষয়ক্ষতি এসএসসি পরীক্ষা শুরু ১ ফেব্রুয়ারি ‘প্রতিবেশী কূটনীতি’তে পাকিস্তানকে অগ্রাধিকার দিবে চীন ফিলিপাইন্স সাগরে মার্কিন সামরিক বিমান বিধ্বস্ত রাণীনগরে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যেবাহী খেজুর গাছের রস সংগ্রহে ব্যস্ত গাছিরা কলাপাড়ার জোয়ার ভাটার প্রবাহমান সরকারী খাল দখল করে মাছ চাষ মওদুদের বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করলেন তোফায়েল তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন বিপাকে ইসি: বিশেষ অতিথি আইভি না শামীম? কুষ্টিয়ায় ২ জনের ফাঁসি, ৮ জনের যাবজ্জীবন পতন হইল সঙ্গিনীরও কারণে আরো লুটপাটের সুযোগ দিতে ব্যাংক পরিচালনায় নতুন আইন: রিজভী ১১ যাত্রী নিয়ে সাগরে পতিত মার্কিন যুদ্ধবিমান নদী দখল মুক্ত করতে নির্মাণ হচ্ছে ওয়াকওয়ে ১১ কোম্পানির লেনদেন স্থগিত বৃহস্পতিবার মোদির গলা ও হাত কাটতে প্রস্তুত বিহারের অনেকেই! শীতে গোড়ালি ফাটলেই কাজে লাগান এই ঘরোয়া পদ্ধতি! ইরাকে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৩২ আধুনিক পদ্ধতিতে টমেটো চাষ ঘোড়ামারা আজিজসহ ৬ জনের ফাঁসি আইফোনেও আসছে ডুয়েল সিম সুবিধা! উত্থানে ফিরেছে সূচক হঠাৎ হার্ট অ্যাটাকে যা করবেন বৃহস্পতিবার আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া বাংলাদেশ সফরের আগে শুভেচ্ছা জানিয়ে পোপের ভিডিও বার্তা