ঢাকা, শুক্রবার ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৭ - 

শিগগিরই মাঠে নামছে আওয়ামী লীগ

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 রবিবার ১০ই সেপ্টেম্বর ২০১৭

ঢাকা: আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দলীয় কোন্দল মিটিয়ে সংগঠন চাঙ্গা করতে শিগগিরই মাঠে নামছে আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বিভাগীয় সাংগঠনিক ও যুগ্ম সম্পাদকরা দলীয় কোন্দল থাকা জেলাগুলো সফর করবেন।

নির্বাচনের আগেই তারা মাঠপর্যায়ের সাংগঠনিক সমস্যা সমাধানের পরিকল্পনা নিয়েছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।


আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ এ ব্যাপারে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, দলে অভ্যন্তরীণ কোন্দল নেই, যা আছে সেটা মতভেদ বা দূরত্ব। আগামী নির্বাচনের আগে আমরা নেতা-কর্মীদের মতভেদ-দূরত্ব দূর করে সুদৃঢ় দলীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠা করতে চাই। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জেলায়-জেলায় আওয়ামী লীগ নানা দলে-উপদলে বিভক্ত। দলীয় কোন্দলপ্রবণ জেলাগুলোর মধ্যে আছে— চট্টগ্রাম মহানগর, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, কুমিল্লা উত্তর, দক্ষিণ ও মহানগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, নরসিংদী, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, শেরপুর, ফরিদপুর, শরীয়তপুর, খুলনা জেলা, নাটোর, নওগাঁ, বরিশাল মহানগর, ভোলা, পিরোজপুর, মৌলভীবাজার এবং সুনামগঞ্জ।

এ বছর ৩০ মার্চে অনুষ্ঠিত কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা দল বেঁধে মাসব্যাপী চেষ্টা করেও দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে পারেননি। দলীয় কোন্দলের কারণেই আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী পরাজিত হয়েছেন বলে দলের কেন্দ্রীয় নেতারা স্বীকার করেছেন। জাতীয় নির্বাচনের আগে কুমিল্লায় জটিলতা আরও বাড়তে পারে বলে নেতারা আশঙ্কা করছেন। সিলেটে দীর্ঘদিন ধরেই চলে আসছে নেতায়-নেতায় দ্বন্দ্ব। সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে কোন্দল রয়েছে। এসব দ্বন্দ্ব কোথাও স্বার্থের, কোথাও নেতৃত্বের আবার কোথাও আধিপত্য বিস্তারের।

আগামী নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় দলীয় কোন্দল নিয়ে বড় দুশ্চিন্তায় রয়েছেন আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতারা। অনেক এলাকায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা দল থেকে দূরে সরে গেছেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলীয় ঐক্যের বিষয়ে সম্প্রতি চট্টগ্রামে এক সমাবেশে নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ঘরে ঐক্য না থাকলে বাইরের ঐক্য কখনো সুদৃঢ় হবে না। জানা গেছে, দলীয় কোন্দল আছে এমন জেলাগুলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফর করতে পারেন। এ ছাড়া সাংগঠনিক সম্পাদকদের দলীয় কোন্দলের বিষয়ে কেন্দ্রে জানানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নেতারা জেলা-উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে সভা-সমাবেশ, কর্মিসভা এবং মতবিনিময় করে তৃণমূলের দ্বন্দ্ব নিরসন করবেন। নেতাদের মধ্যে ক্ষোভ বা মান-অভিমান থাকলে তা নিরসনের চেষ্টা করা হবে। পাশাপাশি ভোটারদের কাছে সরকারের বিভিন্ন সাফল্য তুলে ধরবেন নেতারা। এ ছাড়া সন্ত্রাস-জঙ্গিবিরোধী প্রচারণা চালানো হবে। অভিযোগ আছে, সরকার গঠনের পরই দলের অধিকাংশ মন্ত্রী-এমপি এমনকি সিনিয়র নেতারা ঢাকামুখী হয়ে পড়েছেন। এলাকায় তাদের যাতায়াত কম। সে কারণে মাঠের নেতা-কর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে জেলা-উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে সভা-সমাবেশ, কর্মিসভা এবং মতবিনিময় সভা করে তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের সুসংগঠিত করার কাজ চলছে। এটি আরও ব্যাপকভাবে করা হবে।

তিনি বলেন, নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ থাকলে তার অবসান করা হবে। পাশাপাশি ভোটারদের কাছে সরকারের বিভিন্ন সাফল্য তুলে ধরা হবে। আওয়ামী লীগের আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দলকে আরও শক্তিশালী এবং গতিশীল করতে তৃণমূলে কর্মিসভা এবং মতবিনিময় সভা করা হবে। ভোটারদের কাছে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরা হবে। কোনো সমস্যা থাকলে তা সমাধান করা হবে। বাংলাদেশ প্রতিদিন

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন


Advertisement
দ. আফ্রিকাকে চেপে ধরেছেন মুস্তাফিজরা আরাকানে শান্তিরক্ষী নিয়োগ করতে হবে: ইসলামী ঐক্যজোট ৩ মাইল লম্বা বিয়ের শাড়ি প্রদর্শন, বিতর্কের মুখে দম্পতি ই-সিগারেটে হার্ট অ্যাটাক ও আকস্মিক মৃত্যুর ঝুঁকি! চা-কফির দাগ দূর করার উপায় বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার দল ঘোষণা রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ পাঠালো সৌদি আরব বগুড়ায় ফেন্সিডিল-ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৩ বগুড়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী খুন নিউ ইয়র্কে বসেই যুক্তরাষ্ট্রকে হুমকি উত্তর কোরিয়ার মন্ত্রীর দরজা খুলে দেখি, বাবা আর মেয়ে... রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিএনপি-জামায়াতকে বাদ দিয়ে জাতীয় ঐক্য: ইনু নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন দিতে হবে: নোমান দুই তৃতীয়াংশেরও বেশি রোহিঙ্গা সাহায্য সংস্থার ত্রাণ বঞ্চিত বগুড়ায় প্রশাসনের নাকের ডগায় কোচিং বাণিজ্য রোহিঙ্গাদের জন্য ১০০ টন ত্রাণ পাঠাল সৌদি রোহিঙ্গাদের ত্রান দিলেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনার রোহিঙ্গাদের বিএনপি লিপ সার্ভিস দিচ্ছে : কাদের ভোলা গজনবী স্টেডিয়ামে পুরস্কার বিতরন ‘রোহিঙ্গা মেয়েদের ধর্ষণ করে অঙ্গ কেটে দেয় সেনারা’ সুনামগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ২ মিয়ানমারের রোহিঙ্গা যুবকরা কোথায়? শাহরুখের পর রণবীরের প্রেমে মাহিরা! বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দরী ও ধনী ১০ মুসলিম নারী বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দরী ও ধনী ১০ মুসলিম নারী এখন বৌদ্ধদের কেন জঙ্গি বলা হচ্ছে না: এরদোগান স্মার্টফোনে আসক্তি বাড়াচ্ছে মানসিক ক্ষতি! সুচি-সেনাপ্রধান মানবতা বিরোধী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত পচা চাল আমদানি করছে সরকার : রিজভী রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতীয় ঐক্য হয়ে গেছে : নাসিম সঞ্জয় দত্তকে জুতাপেটা করেন স্ত্রী! রাজধানীতে একই পরিবারের ৫ জন দগ্ধ সুচিকে দেয়া পদক সম্মাননা ফিরিয়ে নেয়ার হিড়িক রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে জরুরিভিত্তিতে প্রয়োজন গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার চাপ উপেক্ষা করে মিয়ানমারকে সামরিক সরঞ্জাম দিচ্ছে ভারত পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নারী: ‘পা ধরে বলেছি কাউকে বলবো না, বাংলাদেশে চলে যাব’ যুবদল নেতা ইমনের নামে ৫৭ ধারায় মামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ। নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে ৩৮তম বিসিএস ‘রিয়া আমার প্যান্ট খোলেননি’ শুক্রবার দিনটি আপনার কেমন যাবে? দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আরাকানের স্বাধীনতা অপরিহার্য: মুফতি ফয়জুল্লাহ রোহিঙ্গাদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে বিশ্ব মেডিকেলে ভর্তিতে নম্বর কাটার আপিল শুনানি ৩ অক্টোবর টেকনাফ অভিমুখে রোডমার্চে পুলিশের বাধা র‌্যাম্প মডেল থেকে ‘জেএমবির কমান্ডার’ বাণিজ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করলেন রিজভী কাশ্মিরে মন্ত্রীকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড হামলা, নিহত ৩ গোপালগঞ্জে সাঁতার প্রশিক্ষণের উদ্বোধন আমরা জয়ের মুখোমুখি: নোমান ডেসকোর পর্ষদ সভা ২৮ সেপ্টেম্বর