ঢাকা, বুধবার ২২শে নভেম্বর ২০১৭ - 

রোহিঙ্গা ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদের উদ্বেগ, সহিংসতা বন্ধের আহ্বান

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 বৃহঃস্পতিবার ১৪ই সেপ্টেম্বর ২০১৭

নিউজ ডেস্ক: রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতা বন্ধ করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে একটি সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

বুধবার রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে ব্রিটেন এবং সুইডেনের ডাকা নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এছাড়া রোহিঙ্গাদের মধ্যে নির্বিঘ্নে ত্রাণ কার্যক্রম চালানোর সুযোগ দিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছে  সংস্থাটি।

এদিকে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সহিংসতা ও সামরিক অভিযান বন্ধ করতে হবে।

তিনি বলেছেন, বেসামরিক লোকদের ওপর হামলা ‘একেবারেই অগ্রহণযোগ্য।’ রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর জাতিগত নির্মূল চলছে বলেও মত দেন তিনি। গুতেরেস বলেছেন, রোহিঙ্গা মুসলিমরা ‘ভয়াবহ মানবিক পরিস্থিতিতে’ পড়েছে। নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে মহাসচিব সাংবাদিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন।


ব্রিটেন ও সুইডেনের প্রস্তাবে বুধবার রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসেন জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা। আশঙ্কা ছিল মিয়ানমারের ঘনিষ্ঠ মিত্র চীন ও রাশিয়ার বিরোধিতার কারণে বৈঠকে কোনো প্রস্তাব বা বিবৃতি দেয়া সম্ভব নাও হতে পারে। তবে শেষপর্যন্ত চীন ও রাশিয়া মিয়ানমারে সহিংসতার নিন্দা জানিয়ে দেয়া বিবৃতিতে সায় দিয়েছে। এজন্য বাংলাদেশের কূটনৈতিক তৎপরতাও ছিল বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

চলতি মাসের শুরুতে নিরাপত্তা পরিষদে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে একটি রুদ্ধদ্বার বৈঠক হলেও চীনের বিরোধিতায় কোনো আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়া সম্ভব হয়নি।

বৈঠক শেষে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি ও ইথিওপিয়ার রাষ্ট্রদূত তাকেদা আলেমু সাংবাদিকদের বলেন, ‘পরিষদের সদস্যরা মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে মাত্রাতিরিক্ত শক্তি প্রয়োগের খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং রাখাইনে সহিংসতা বন্ধে অবিলম্বে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।’ বৈঠকে সহিসংতার নিন্দা জানিয়ে রাখাইনে মানবিক ত্রাণ তৎপরতা চালানোর অনুমতি দেয়ার আহ্বান জানানো হয়।

নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে জাতিসংঘে ব্রিটেনের উপরাষ্ট্রদূত জনাথন অ্যালেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা সহিংসতার অবসান দেখতে চাই। আমরা বার্মায় ও রাখাইনে জনগণের জন্য অবিলম্বে ও ব্যাপকভাবে মানবিক ত্রাণ তৎপরতার সুযোগ চাই। সুইডেনের রাষ্ট্রদূত ওলফ স্কুগ বলেন, তিনি আশা করছেন যে এখন কী করতে হবে সে সম্পর্কে একটি ঐক্যবদ্ধ ফলাফল ও সুস্পষ্ট বার্তা (মিয়ানমারকে) দেয়া হবে। ব্রিটেন ও সুইডেন অং সান সুচিকে জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বাধীন কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়ন ও রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারের নাগরিকত্ব দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

নিরাপত্তা পরিষদের এ বৈঠক মিয়ানমারের ওপর যথেষ্ট চাপ সৃষ্টি করেছে। বৈঠক আয়োজনের ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের আসন্ন সম্মেলনে যোগদান থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছেন সুচি।

 বিশ্লেষকরা বলছেন, বিষয়টি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে আলোচনার গুরুত্ব অপরিসীম। এদিকে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের প্রাক্কালে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, জাতিসংঘের ক্ষমতাধর এ অঙ্গ সংস্থাটি যদি মিয়ানমারের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কোনো কথা না বলে তবে দেশটিতে নিধনযজ্ঞ অব্যাহত থাকবে।

রাখাইন রাজ্যে বর্তমান সেনা অভিযান শুরুর পরও চলতি মাসের শুরুতে একবার নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার কক্ষে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আলোচনা হয়। যুক্তরাজ্যের উদ্যোগে সেই আলোচনা হয়েছে। তবে বৈঠকে সাহায্য কর্মীদের রাখাইন রাজ্যে যাওয়ার সুযোগ সৃষ্টির আহ্বানসংবলিত একটি বিবৃতি দেয়ার প্রস্তাবের ব্যাপারে চীনের আপত্তি ছিল। এ কারণে বিবৃতি দেয়া সম্ভব হয়নি।

Advertisement
অবশেষে পদত্যাগ করলেন জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট মুগাবে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচে রংপুরের জয় কেমন যাবে আপনার বুধবার দিনটি! জেলা জজ ও যুগ্ম জজসহ ২৫ বিচারকের রদবদল কেঁদে ফেললেন ঐশ্বরিয়া রাই এবার নাচলেন ও গাইলেন এমপি শামীম ওসমান যৌন হয়রানির শিকার উত্তর কোরিয়ার নারী সৈন্যরা অবৈধভাবে গাড়ি পার্কিং ও বড়বড় খানা খন্দের কারনে বাড়ছে দূর্ঘটনা, অকালে ঝরছে প্রান আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সহ ২০ জনকে আদালতের শোকজ জাবিতে ভর্তি হতে এসে আরো দুই শিক্ষার্থী কারাগারে জাবিতে ৫ম ম্যানেজমেন্ট উইক শুরু বুধবার আমতলী ও তালতলী উপজেলায় ৫১টি বিদ্যালয়ের ভবন জরাজীর্ন: শিক্ষক নেই ২৬০ জন মওদুদের বক্তব্য গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ : হানিফ জনগণ থেকে সরকার সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে: মির্জা ফখরুল বরিশালে তারেক রহমানের জন্ম দিন পালন ফার্ম্মাসিষ্ট জটিলতায় বাড়ছে ড্রাগলাইসেন্স বিহীন ফার্ম্মেসী ইবির ভর্তি পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ সূচী প্রকাশ অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন কুমিল্লার মেয়র সাক্কু প্রেমের ফাঁদে স্কুলছাত্রীকে আ.লীগ নেতার একাধিকবার ধর্ষণ বিয়ের রাতে পালালেন সাবিলা নূর! পায়ের ওপর পা দিয়ে বসলে কুঁজো হয়ে যেতে পারেন চিরকাল যৌবন ধরে রাখবে যেসব খাবার যে কাজগুলোই প্রতিনিয়ত ক্ষতি করছে মস্তিষ্কের প্রাথমিক সমাপনীতে নাতির সঙ্গে ৬৫ বছরের নানী অর্থনৈতিক সঙ্কটের মুখে তুরস্ক, কাটিয়ে ওঠার আশাবাদ এরদোগানের নিজেকে আরো সুন্দর করে তুলতে ব্যবহার করুন এই ৭ তেল পুলিশ পাহারায় খোলা জায়গায় ভারতীয় মন্ত্রীর মূত্রত্যাগ টিকল না ১০ নম্বর সম্পর্কও? সুস্মিতার বয়ফ্রেন্ডের তালিকা... নাইজেরিয়ায় মসজিদে হামলা: নিহত অন্তত ৫০ লেনদেনের শীর্ষে লংকাবাংলা ফিন্যান্স বাজারে আইলাইফের নতুন ল্যাপটপ আ.লীগ নেতার অভিযোগ: খালেদার গাড়িবহরে হামলার নেপথ্যে নিজাম হাজারী তবু চলছে সৌদি হামলা; আরো ১২ ইয়েমেনি নিহত মাদ্রাসার কক্ষ থেকে হাত বাঁধা ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার খাগড়াছড়িতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন শ্রাবন্তীর ‘বয়ফ্রেন্ড’ শাকিব খান ‘৪০টির বেশি আসন পাবে না আ’লীগ’ ‘শিগগিরই নতুন বিচারপতি নিয়োগ’ স্বামী-স্ত্রীর দ্বন্দ্বের জের ধরে মারপিট: উভয় পক্ষের আহত ৬ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ: আ‘লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা কলাপাড়ায় তারেক রহমানের জন্মদিন পালন কলাপাড়ায় প্রসুতী রোগীর মৃত্যুর পর ফের আলোচনায় আলেয়া ক্লিনিক পুঁজিবাজারে দর সংশোধন ‘নতুন করে ট্রেড ইউনিয়নের অনুমতি দেওয়া হবে না’ রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চলতি সপ্তাহেই সমঝোতা: সু চি সোনিয়ার বর্ণাঢ্য যুগ ৬ কোম্পানির লেনদেন স্থগিত বুধবার ‘ইসরাইলকে প্রতিহত করার পূর্ণ অধিকার লেবাননের রয়েছে’ ‘নির্বাচনের আগেই দেশে ফিরবেন তারেক রহমান’ ‘সিনহা যাওয়ায় বিচার বিভাগের কাজ দ্রুত এগোচ্ছে’