ঢাকা, মঙ্গলবার ২৪শে অক্টোবর ২০১৭ - 

ফিরতে হবে শুনেই আতঙ্কে নীল রোহিঙ্গা নারীরা

প্রাইমনিউজবিডি.কম
 বৃহঃস্পতিবার ১২ই অক্টোবর ২০১৭

ঢাকা : সন্ত্রাসের হাতিয়ার ধর্ষণ। আতঙ্ক ছড়াতে পুরুষদের বেঁধে রেখে তাদের চোখের সামনেই নারীদের যৌন নির্যাতন। তার শিকার মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশ ছেড়ে বাংলাদেশের নানা শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া নানা বয়সের রোহিঙ্গা নারী, অনেকে এখনও আতঙ্কে বাক্যহারা।


বছর একুশের আনোয়ারা বেগম। কোলে বছর দেড়েকের ছেলেকে নিয়ে বাংলাদেশ বালুখালিতে কালো প্লাস্টিকের ছাউনি দেওয়া ছোট্ট শিবিরে বসেছিলেন। দিন দশেক আগে মায়ানমাররের গ্রাম থেকে পালিয়ে আসার আগে সেনাবাহিনীর গণধর্ষণের শিকার তিনি।


শোনালেন গত ১৬ সেপ্টেম্বরের কাহিনী। তিনি বলেন, ‘রাত হয়েছিল। ননদ আর বছর দেড়েকের ছেলেকে নিয়ে খেতে বসেছিলাম। আচমকা চেঁচামেচি। ভারী জুতোর শব্দ। দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকল সেনাদের দলটি।’ আনোয়ারা জানাচ্ছেন, থালা উল্টে দিয়ে মেয়েদের একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে বন্ধ করে দিল তারা। চার ননদ-সহ তাঁকেও গলায় ছুরি ঠেকিয়ে শুরু করে ধর্ষণ। প্রথমে এক জন। তার পর অন্তত ১২ জন মিলে কয়েক ঘণ্টা ধরে চলে গণধর্ষণ।


গণধর্ষণের পর বাইরে থেকে ঘরে আগুন দিয়ে চলে যায় সেনাবাহিনী। আগুনের তাপে জ্ঞান ফিরতে হাতড়ে ছেলেকে খুঁজে বেড়ার ফাঁক গলে বেরিয়ে লুকিয়ে থাকেন আনোয়ারা। পরে শরীর টেনে টেনে ১৪ দিন ধরে হেঁটে পৌঁছন বাংলাদেশে। আনোয়ারা বাঁচলেও দুই ননদকে বাঁচাতে পারেননি। গণধর্ষণ আর নির্যাতনে সেখানেই মারা যান তাঁরা। শুধু আনোয়ারা নন, কক্সবাজারের কতুপালং এবং বালুখালি শিবিরে বহু নারী আশ্রয় নিয়েছেন যাঁরা পালিয়ে আসার আগে শিকার হয়েছেন সেনার গণধর্ষণের। অত্যাচারের সেই দাগ দগদগে তাঁদের শরীরে।


একই অভিজ্ঞতা তামি গ্রামের আয়েশা, মহসিনা, রাজুমা বেগমদের। মহসিনাকে গণধর্ষণ করার পরে ফেলে রেখে গেলে পরে তিনি কোনওক্রমে পালিয়ে আসেন বাংলাদেশে। এখন কতুপালং-এর এক স্কুলে তাঁর ঠিকানা। সেনারা টেনে নিয়ে গিয়েছিল তাঁর তরুণী বোনকে। রাস্তায় দেখেছিলেন বোনের নগ্ন মৃতদেহ পড়ে রয়েছে উল্টে। আর রাজুমা! বেঁচে রয়েছেন ঠিকই। অস্থির দৃষ্টি চোখে। সে ভাবেই বলেন ৩০ আগস্ট তুলাতুলির ঘটনা। সেনারা গ্রামে ঢুকে সবাইকে ঘর থেকে বার করে এক জায়গায় জড়ো করে। পুরুষদের সেখানেই গুলি করে মেরে ফেলে। তারপর ৪/৫ জন করে মেয়েদের এক একটি ঘরে ঢুকিয়ে সেনারা ধর্ষণ করে। সঙ্গে নির্যাতন। আজুমা বলেন, ‘বছর দেড়েকের ছেলেকে ছুঁড়ে ফেলে দেয়। সে কেঁদে ওঠায় গলা কেটে খুন করে।’


শরণার্থীদের ফেরত দেওয়ার জন্য মায়ানমার সরকারের সঙ্গে কথা শুরু করেছে ঢাকা। কিন্তু কিছুতেই আর গ্রামে ফিরতে চান না আনোয়ারা-মহসিনারা। ফেরার কথা শুনলেই আতঙ্কে চিৎকার করে উঠছেন তাঁরা, ‘না! ওখানে ফিরবো না আমরা।’ শুধু শূন্যদৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকেন রাজুমা। যেন কিছুই বলার নেই তাঁর।


সূত্র: আনন্দবাজার

Advertisement
রবিবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন খালেদা জিয়া মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপ করছে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে ক্ষমতার পালাবদলে ভারত কি গুরুত্বপূর্ণ? বলিউড হিরোদের কার কত পারিশ্রমিক? আজ ১১ কোম্পানির পর্ষদ সভা ফিফার বর্ষসেরা হলেন যারা ‘ঢাকাকে কোনো সুখবর দিতে পারেননি সুষমা’ এমন কিছু মেয়েলি আদর যা পুরুষরা পেতে ভালবাসে! সম্পর্কে থেকেও অন্য কাউকে ভাল লাগছে? দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজ বিপর্যয় যা বললেন: পাপন বিএনপি নেতা এম কে আনোয়ার আর নেই সিনেমা ভালই উপভোগ করছেন সৌদিরা কোন দল কি চায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ? মঙ্গলবার দিনটি কেমন যাবে আপনার? অভিমানে পাশাপাশি অ্যাশ-অভি! ফের শাহরুখ-কাজলের রোমান্স উপভোগ করবেন দর্শকরা! বাংলাদেশ ব্যাংকের আগুন নিয়ন্ত্রণে গোপালগঞ্জে বাস ও নসিমনের সংঘর্ষে যুবক নিহত, আহত-২ বাংলাদেশ ব্যাংকে ফের আগুন তারেক রহমানের বিরুদ্ধে পরোয়ানা, নয়াপল্টনে ছাত্রদলের বিক্ষোভ বিএনপি উচ্ছ্বসিত, আমরাও উচ্ছ্বসিত: কাদের ‘পদ্মা সেতু নিয়ে ষড়যন্ত্র করেছিলেন ইউনূস’ ৯ মাসে ক্রসফায়ারে ১০৭ ব্যক্তি নিহত এবার সিডনিতে থেরাপিস্টকে গেইলের কুপ্রস্তাব! নির্বাচনে নারীদের সুপারিশ ও পরামর্শ গুরুত্ব পাবে: সিইসি বুধবার সারাদেশে বিএনপির প্রতিবাদ সভা ধর্ষকের হুমকিতে গা ঢাকা স্কুল ছাত্রীর : ৪দিনপর উদ্ধার আঞ্চলিক শান্তির জন্য গোপনে ইসরায়েলে সৌদি যুবরাজ! মাজারে খাদেমের লাথিতে মারা গেলেন বৃদ্ধা ভক্ত বাহুবলীকে জন্মদিনে কি উপহার দিলেন দেবসেনা? যৌন নিপীড়নের আখড়া ইইউ পার্লামেন্ট! বাংলাদেশে বিনিয়োগ করবে এলজি বিশ্ববাসীকে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতেই হবে : জর্ডানের রানি গোপালগঞ্জ জেলা ব্রান্ডিং, কিশোর বাতায়ন বিষয়ক প্রেস ব্রিফিং তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা : বিক্ষোভ করবে যুবদল শাহবাজপুরে আরও ৭০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাসের সন্ধান ফখরুলের নাশকতার মামলা স্থগিত ধর্ষণ থেকে বাঁচতে ট্রেন থেকে লাফ ভারতের অগ্রাধিকার তালিকায় সবার আগে বাংলাদেশ: সুষমা ‘জনগণ প‌রিবর্তন চায়, খা‌লেদা জিয়াই হবেন প‌রিবর্ত‌নের নায়ক’ এনসিসি ব্যাংকের পর্ষদ সভা ২৯ অক্টোবর টানা তৃতীয়বারের মত বিজয়ী শিনজো আবে ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন না ক্রেন দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তরা দেয়াল ধসে প্রাণ গেলো ৩ বোনের জামায়াত নেতার রায় যে কোনো দিন রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় তারেক রহমানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ভারতীয় অর্থায়নে ১৫ প্রকল্প উদ্বোধন সূচক পতনে লেনদেন সৈয়দ আশরাফের স্ত্রী আর নেই ২৫ দেশের ভিসা সহজ করেছে ওমান, নেই বাংলাদেশ