মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ০১:৫৮:৪০

মাত্র ৩ জন যে ভাষায় কথা বলেন

মাত্র ৩ জন যে ভাষায় কথা বলেন

ঢাকা : বিশ্বে বহু ভাষাভাষী মানুষের বসবাস। এখানে তারা তাদের নিজেস্ব ভাষায় কথা বলেন। কিন্তু এমনটা কি কখনো শুনেছেন যে একটি ভাষায় মাত্র তিন কথা বলে? শোনারই কথা। কেননা, মাত্র তিন জন একটি ভাষায় কথা বলেন এটা অবাক হওয়ার মতোই বিষয়।

পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের পাহাড়ি উপত্যকায় এক সময় বাদেশি ভাষার ব্যাপক প্রচলন ছিল। কিন্তু সময়ের পরিক্রমায় এখন সেই ভাষা বিলুপ্তপ্রায়।

বর্তমানে মাত্র ৩ ব্যক্তি এই ভাষায় কথা বলেন বলে জানিয়েছে ইথনোলগ নামে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি প্রকাশনা সংস্থা।

ওই সংস্থাটির কাজ হচ্ছে- বিভিন্ন ভাষার তালিকা ও শব্দভাণ্ডার সংগ্রহ করা।

সংস্থাটি সূত্রে জানা গেছে, মাত্র ৩ ব্যক্তি ছাড়া ওই ভাষায় কথা বলার মতো আর কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাদের মতে এক সময় পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের পাহাড়ি উপত্যকায় সকলেই এই ভাষায় কথা বলতেন। কিন্তু এখন সেই ভাষাতে ৩ ব্যক্তি কথা বলেন। এই তিন জনের মৃত্যুর সাথে সাথে বাদেশি ভাষা পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হয়ে যাবে।

এই তিন জনের মধ্যে রহিম গুল নামের একজন বলেন, ‘এক প্রজন্ম আগে বাদেশি ভাষায় পুরো উপত্যকার মানুষ কথা বলতেন। এখন এই ভাষায় কথা বলার মতো লোক খুঁজে পাওয়া যায় না।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা অন্যগ্রাম থেকে মেয়েদের বিয়ে করে নিয়ে আসতাম। তাদের ভাষা টারওয়ালি। তাদের শিশুরা মায়ের ভাষায় কথা বলা শুরু করে। এতে আমাদের ভাষা হারিয়ে যেতে শুরু করে। এখন পুরো উপত্যকায় টারওয়ালি ভাষার আধিপত্য।’

এই তিন জনের মধ্যে সাঈদ গুল বলেন, ‘এখন আমাদের সন্তানরা টারওয়ালি ভাষায় কথা বলেন। কাজেই আমার ভাষায় আমি কার সঙ্গে কথা বলব? আশপাশে এমন কেউ নেই, যার সঙ্গে এই ভাষাতে কথা বলা যায়।’

রহিম গুলের চাচাতো ভাই হলো, সাঈদ গুল।

ইথনোলগ নামে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রকাশনা সংস্থা বলছে, ওই অঞ্চলটিতে বর্তমানে আর বাদেশি ভাষা ব্যবহারের কোনো সুযোগ নেই। ইথনোলগ এমনটিও বলেছে, ওই ৩ ব্যক্তিও নাকি প্রায় বাদেশি ভাষাটি ভুলে যেতে বসেছেন।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি জাতিসংঘে যাওয়ায় সরকার আতঙ্কিত - ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?