সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৮, ১২:৩৩:৫৩

প্রেমের ভারে ভেঙে পড়ছে ব্রিজ!

প্রেমের ভারে ভেঙে পড়ছে ব্রিজ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জার্মানির কোলন, অস্ট্রিয়ার সালৎসবুর্গ কিংবা ফ্রান্সের প্যারিস –এ সব শহরের নদীর উপর রয়েছে বড় বড় ব্রিজ আছে। আর এই ব্রিজগুলোর মধ্যে একটা বিষয়ে খুব মিল খুঁজে পাওয়া যায়, সেটি হলো তালা। এগুলোর রেলিংয়ে ঝুলছে অসংখ্য তালা৷ এগুলোকে বলে ‘প্যাডলক’যার সহজ বাংলা‘প্রেম তালা’৷ আর এই তালার কারণেই ব্রিজগুলো ভেঙে পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

এই তালার উদ্দেশ্য হলো সম্পর্কের অটুট বন্ধন৷ প্রেমিক বা প্রেমিকা তার সঙ্গীর সঙ্গে নিজের নামটা লিখে ঐ তালা ব্রিজে আটকে চাবিটা নদীতে ফেলে দেন। তাদের বিশ্বাস, এর ফলে তাদের সম্পর্ক ওই তালার মতো দীর্ঘ সময় জোড়া লেগে থাকবে৷ প্যারিসকে বলা হয় প্রেমের নগরী। তাই স্বাভাবিকভাবেই সেখানে প্রেমিক-প্রেমিকাদের বিচরণ চোখে পড়ার মতো। এ কারণে সেখানকার ব্রিজে তালার সংখ্যাটাও তুলনামূলকভাবে অন্যান্য শহরের চেয়ে বেশি।

গত জুন মাসে সেখানকার একটি ব্রিজ নাকি এ সমস্ত তালার ভারে ধসে পড়েছে। হেলে পড়েছে একপাশের রেলিং। তাই তাৎক্ষণিকভাবে পর্যটকদের জরুরিভিত্তিতে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে সেই ব্রিজের আশপাশ থেকে।

তাই কর্তৃপক্ষ বাধ্য হয়ে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার পরিকল্পনা করছেন। পর্যটক যুগলদের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে যাতে তারা হুজুগে মেতে আর তালা না লাগান। সম্প্রতি প্যারিসের সিটি হলে কর্তৃপক্ষ এ নিয়ে একটি আবেদন জানিয়েছেন। শুধু তাই নয়, বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও শুরু হয়েছে প্রচার৷ হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে #lovewithoutlocks লিখে তা পোস্ট করা শুরু হয়েছে ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদি মাধ্যমে।

এই প্রচারের মাধ্যমে পর্যটকদের তারা বোঝানোর চেষ্টা করছেন যে, এভাবে একটি করে তালা লাগানোর ফলাফলটা কতটা ভয়াবহ।

এই লাভলকের পেছনে একটি সার্বিয়ান কাহিনী আছে। এক নববধূ তার বিয়ের দিন এক ব্রিজে গিয়ে তালা লাগিয়ে দেন। কেননা বিয়ের আগে ঐ ব্রিজের ওপরই প্রেমিকের সাথে প্রতিদিন দেখা করতেন তিনি। এরপর থেকে এর প্রচলন শুরু হয়৷ যদিও ইটালির লেখক ফেডেরিকো মচা এই প্রচলন তার লেখা উপন্যাস থেকে হয়েছে বলে দাবি করেছেন। বইটির নাম ‘আই ওয়ান্ট ইউ'। সেখানে এমন একটি দৃশ্য আছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্যারিসে অবশ্য সেই ২০০৮ সাল থেকে ব্রিজে যুগলদের তালা লাগানোর এই হুজুগ শুরু হয়। এরপর থেকে পুরো বিশ্বের সব ব্রিজেই এখন দেখা মেলে এ ধরনের তালার। এ নিয়ে শঙ্কিত পরিবেশবিদরাও। তবে তাদের শঙ্কার কারণ তালা বা ব্রিজ নয়, তালা লাগিয়ে যে চাবিগুলো নদীতে ছোড়া হচ্ছে সেগুলো নিয়ে।


সৌজন্যে ডয়চে ভেলে

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি জাতিসংঘে যাওয়ায় সরকার আতঙ্কিত - ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?