সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৫ জুন, ২০১৮, ১২:৩৪:১৪

‘বাংলাদেশের নীতি নির্ধারকদের অনেকেই মাতাল’

‘বাংলাদেশের নীতি নির্ধারকদের অনেকেই মাতাল’

ঢাকা: সারাদেশে মাদক নির্মূল অভিযান চলছে অথচ সরকারি মদের ফ্যাক্টরি কেরু এন্ড কোম্পানি বন্ধ করা হয়নি। এ নিয়ে চলছে মাতামাতি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে সমালোচনা। স্ট্যাটাস দিয়েছেন লেখক ওব্লগার পিনাকী ভট্টাচার্য।

তিনি লিখেছেন- বাংলাদেশের আরবান এলিট ও নীতি নির্ধারকদের অনেকেই মাতাল, মদ্যপ ও মাদকাসক্ত। এদের মদ্যপানের আড্ডা ঢাকা ক্লাব, গুলশান ক্লাব, উত্তরা ক্লাব, ক্যাডেট কলেজ ক্লাব, অল কমিউনিটি ক্লাব সহ এমন আরো কিছু যায়গা।

গরীবের কষ্টার্জিত বৈদেশিক মূদ্রায় বিদেশ থেকে মদ কিনে আনার লাইসেন্সও দেয়া হয়েছে এলিট, বড় লোক ও লুটেরাদের এই সব আড্ডাখানা গুলোকে!

জনগণের সরকার মাদক বিরোধী অভিযান চালালে, আগে এই এলিট আড্ডাখানার মদ আমদানির লাইসেন্স বাতিল করে মদের আড্ডাখানার উপরে বুল ডোজার চালিয়ে দিত। গরিবের কষ্টার্জিত বৈদেশিক মুদ্রায় এলিটদের বিদেশী মদ আমদানি নিষিদ্ধ কর।
উৎসঃ   আমাদের সময়

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি জাতিসংঘে যাওয়ায় সরকার আতঙ্কিত - ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এ বক্তব্য সমর্থন করেন কি?