শনিবার, ২১ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ২৩ জুন, ২০১৮, ১২:৩০:০৫

নির্বাচনে আসবে বিএনপি, তবে...

নির্বাচনে আসবে বিএনপি, তবে...

ঢাকা: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আহমদ আজম খান বলেছেন, আগামী নির্বাচনে বিএনপিকে বাইরে রেখে সরকার যদি মনে করে আবার একটা ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করবে তাহলে নির্বাচনের দরকার নাই, সিলেকশন করলেই হয়। নির্বাচন করলে বিএনপি আসবে। তবে সেটি নির্বাচনের মত নির্বাচন হতে হবে, জনগণের ভোটের নির্বাচন হতে হবে।

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশনের সরাসরি টক-শো অনুষ্ঠানে এসে তিনি এ কথা বলেন।

আহমদ আজম খান বলেন, আমরা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ইস্যুতে ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে যাইনি। তবে, নির্বাচন প্রতিহত করেছি। যেখানে ৪০টি রাজনৈতিক দলের মধ্যে ৯টি দলের বেশী নির্বাচনে যায়নি, ১৫৪টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়নি সেটার মানেই নির্বাচন প্রতিহত হওয়া।

তিনি বলেন, এই মুহুর্তে আগামী নির্বাচনের জন্য সরকার নানা রকম কথা বলছে, বিএনপি না আসলে আমাদের যায় আসে না ইত্যাদি। একটা কথা স্পষ্ট, বাংলাদেশে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হতে হলে যেমনি আওয়ামী লীগের দরকার আছে, তেমনি বিএনপিরও দরকার আছে। কারণ, এ বড় দুটি দলই দেশের ৮০ ভাগ মানুষ সমর্থন করে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে বাংলাদেশের প্রত্যেকটি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানকে বিতর্কিত করেছে এই সরকার। আইন শৃঙ্খলা-বাহিনীকেও দলীয়করণ করেছে।

কারাগারে থাকা বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা ইস্যুতে তিনি বলেন, যেখানে এর আগেও তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন, এবং উনি যেহেতু বর্তমানে ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার কথা বলছেন, তাহলে সেখানে চিকিৎসা করাতে সরকারের আপত্তি কোথায়?

‘সরকার এটা নিয়ে রাজনীতি করছে। কিভাবে দেশনেত্রীকে বিতর্কিত করা যায়, সেজন্য দেশনেত্রী যেখানে চায় সেখানে চিকিৎসা করাতে দেবে না। যেখানে দেবে, সেখানে না গেলে যেন উনাকে দায়ী করা যায়’, বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ম্যাডাম খালেদা জিয়া অসুস্থ। তার চিকিৎসা জরুরি। সরকার বলছে, একবার এখানে, আরেকবার ওখানে। তার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি করছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। বিএনপির যে আইনজীবী রয়েছে তাদের সম্পর্কেও আমাদের বিরোধী পক্ষ যে ধরণের মন্তব্য করেন, তা দুঃখজনক।

এসময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, একটা সাজানো মামলায় পরিত্যক্ত বাড়িতে আটক রাখা হয়েছে বেগম খালেদা জিয়াকে। মামলায় উনি হারেননি, মামলায় হারাতে সরকার বাধ্য করেছে।

আজকের প্রশ্ন

খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটকে ‘প্রহসন’ বলেছেন বিএনপি ও বামপন্থিরা। আপনি কি একমত?