রবিবার, ২৪ জুন ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, ০৬:২২:২৪

শকুনদের রেস্টুরেন্ট

শকুনদের রেস্টুরেন্ট

নাম জটায়ু রেস্টুরেন্ট, হিন্দুদের ধর্মীয় গ্রন্থ রামায়নে বর্ণিত বীর শকুন পাখি ‘জটায়ু’র নামে এই নামকরণ। মোটামুটি মরা পশুদের ভাগাড় হিসেবে ব্যবহৃত হলেও বিশেষত্ব হচ্ছে এটা শকুনদের রেস্টুরেন্ট। নেপালের এই রেস্টুরেন্টটিতে অবশ্য শকুনদের কোনো অর্থ খরচ করতে হয় না, বরং আয়োজকরাই বিশেষ উদ্দেশ্যে এই রেস্টুরেন্ট পরিচালনা করে থাকে বলে আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে জানা গেছে।

 

 

সারা বিশ্বেই শকুনদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। তারপরও নেপালের এই এলাকাটিতে প্রায় ৯ ধরনের শকুনের বাস। তাদের নিয়ে বিভিন্ন গবেষণার সুবিধার্থে শকুন অধ্যুষিত এই এলাকাটিকেই বেছে নেওয়া হয়েছে। আশেপাশের খামারি ও পশুপালকরা তাদের মৃত কিংবা রোগাক্রান্ত পশু খুব অল্প দামে এখানে বিক্রি করে দেয়। আর তা থেকেই চলে শকুনদের নিত্যদিনের খাবার।

উড়ে বেড়াচ্ছে একটি শকুন।

আর হাড়গোড়গুলো স্থানীয় পোল্ট্রি খাবার ও সার উৎপাদক প্রতিষ্ঠানে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

আজকের প্রশ্ন

খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটকে ‘প্রহসন’ বলেছেন বিএনপি ও বামপন্থিরা। আপনি কি একমত?