বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ০৮ এপ্রিল, ২০১৮, ১০:৫০:৪২

৪ হাজার বছরের পুরনো মমির পরিচয় উদঘাটন

 ৪ হাজার বছরের পুরনো মমির পরিচয় উদঘাটন

ঢাকা : সমাধিমন্দির লুটপাটের সময় মমির মাথা থেকে দেহ বিচ্ছিন্ন করে ফেলে লুটেরারা। হ্যা, এটা চার হাজার বছরের পুরনো একটি মিসরীয় মন্দিরের ঘটনা।

তারপর জল্পনা-কল্পনা শুরু হয় এটি কার মাথা। তবে সম্প্রতি সেই রহস্য উদঘাটন করেছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। সিএনএন।

এফবিআইয়ের ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা ডিএনএ নির্ণয় করতে সক্ষম হন চার হাজার বছরের পুরনো মমিটির। যার ফলে পরিচয় নিশ্চিত করা সম্ভব হয় মমিটির।

জানা যায়, অতীতে কোনো এক সময় সমাধিমন্দিরটি লুটপাট করা হয়। মন্দির লুটপাটের সময় লুটেরারা মমির মাথা থেকে দেহ বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। অনেক চেষ্টা করেও প্রত্নতত্ত্ববিদরা কোনোভাবেই নিশ্চিত হতে পারছিলেন না এ মমির মাথার সম্পর্কে। তবে এ সমাধিমন্দিরটি যে ব্যক্তির তিনি ছিলেন একজন গভর্নর। তার নাম ছিল ডিজেহুতিয়েনখট। তবে এ বিচ্ছিন্ন মাথাটি কি তার ছিলো নাকি অন্য কারো তা বোঝা অসম্ভব হয়ে পড়েছিল। পরে যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনের একটি জাদুঘরে সে সমাধিমন্দিরটির সব জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়া হয়। এতদিন সেখানে রাখার পর এবার মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার বিশেষজ্ঞরা মস্তকটির পরিচয় উদঘাটনে সচেষ্ট হয়।

এতদিন পর এফবিআই বিশেষজ্ঞরা মমির দাঁত থেকে শেষ পর্যন্ত ডিএনএ নির্ণয় করতে সক্ষম হন। এরপর তারা জানান, এটা পুরুষের মমি। অর্থাৎ এটা অন্য কারো নয়, সেই গভর্নরেরই মাথা।

আজকের প্রশ্ন

খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটকে ‘প্রহসন’ বলেছেন বিএনপি ও বামপন্থিরা। আপনি কি একমত?