বুধবার, ২৩ মে ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৪ মে, ২০১৮, ১০:৩৪:৩৬

ট্রাম্পের পুত্রবধূর সঙ্গে সৌদি যুবরাজের প্রেম!

ট্রাম্পের পুত্রবধূর সঙ্গে সৌদি যুবরাজের প্রেম!

ঢাকা: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় ছেলে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রকে বিয়ের আগে এক সৌদি যুবরাজের সঙ্গে প্রেম ছিল ভেনেসা ট্রাম্পের। কিন্তু ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর টুইন টাওয়ারে সন্ত্রাসী হামলার পর সব বদলে যায়।

পেজ সিক্স নামে একটি মার্কিন সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায়, ১৯৯৮ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত যুবরাজ খালিদ বিন বদরের সঙ্গে প্রেম করেছেন ভেনেসা। এ সময় তারা একসঙ্গেই থাকতেন। কিন্তু ৯/১১ হামলার পর ভেনেসাকে রেখে সৌদি আরব ফিরে যান যুবরাজ। তাদের মধ্যে বেশ গভীর সম্পর্ক ছিল। এমনকি বিয়ের পরিকল্পনাও ছিল তাদের। কিন্তু টুইন টাওয়ার হামলা এই পরিকল্পনাকে ভেস্তে দেয়। ভেঙে যায় ভেনেসার আরেকটি প্রেম। যুবরাজের সঙ্গে প্রণয়ে জড়ানোর আগে ভেনেসার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল ল্যাটিন কিং ভ্যালেন্টাইন রিভেরা ও লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওর।

ভেনেসা ও খালিদের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার সুনির্দিষ্ট কারণ সম্পর্কে জানা যায় না। কারণ ৯/১১ হামলার পর খালিদ দেশে ফিরলেও আমেরিকাতেই থেকে যান তার বাবা বদর বিন সুলতান। সৌদি রাজপরিবারের প্রভাবশালী এই ব্যক্তি ১৯৮৩ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত আমেরিকায় সৌদি রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করেছেন।

এদিকে খালিদের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ভেনেসা বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ছেলে ট্রাম্প জুনিয়রকে বিয়ে করেন। সে হিসেবে রাজপরিবারের মতোই একটি পরিবারে যুক্ত হয়েছেন তিনি। তবে যুবরাজ খালিদ ভেনেসাকে রানি হিসেবে গণ্য করতেন। তারা ছিলেন সত্যিকারের এক জুটি। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র ঠিক উল্টো। ভেনেসাকে তিনি অনেকটা দ্বিতীয় সারির নাগরিকের মতো বিবেচনা করেন।

স্ত্রী ভেনেসার সঙ্গে ট্রাম্প জুনিয়রের আচরণ ছিল বেশ কাঠখোট্টা ধরনের। তবে চলতি বছরের মার্চে বিচ্ছেদের আগ পর্যন্ত ট্রাম্প জুনিয়র ও ভেনেসার সম্পর্ক বেশ ভালো ছিল।

অপরদিকে অক্সফোর্ড থেকে স্নাতক করা খালিদ বর্তমানে জার্মানিতে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বিয়ে করেছেন ব্রিটিশ অভিজাত পরিবারের মেয়ে লুসি ক্যারোলিন কাথবার্টকে।

আজকের প্রশ্ন

খুলনা সিটি নির্বাচনের ভোটকে ‘প্রহসন’ বলেছেন বিএনপি ও বামপন্থিরা। আপনি কি একমত?